দেশ-বিদেশের নানান সুন্দরী প্রতিযোগিতায় সুন্দরীদের হাস্যকর সব উত্তর

৩৫৬৬ পঠিত ... ১৯:৩৫, অক্টোবর ০১, ২০১৮

গতকাল বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে হয়ে গেল দেশীয় সুন্দরী প্রতিযোগিতা ‘মিস বাংলাদেশ’ এর ফাইনাল। গতবারের ঐতিহ্য ধরে রেখে এবারও যথেষ্ট আলোচনা-সমালোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে এই প্রতিযোগিতা। বিচারকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিযোগীদের ‘বিচিত্র’ উত্তর সামাজিক গণমাধ্যমে জন্ম দিয়েছে হাস্যরসের।

H2O কী, এমন প্রশ্নের জবাবে এক প্রতিযোগী জানান, H2O হচ্ছে ধানমন্ডির একটি রেস্টুরেন্ট (যদিও তিনি ভুল বলেননি), আরেকজনকে দেশের জন্য কিছু ‘উইশ’ করতে বলায় তিনি দেশের জন্য কক্সবাজার, সুন্দরবন এবং পাহাড় ইত্যাদি ‘উইশ’ করেন! তবে শুধু যে দেশের সুন্দরীদের এই অবস্থা তা কিন্তু না, বিশ্বজুড়ে নানান সুন্দরী প্রতিযোগিতায় সুন্দরীরা এই রকম সরল প্রশ্নের অদ্ভুত সব উত্তর দিয়েছিলেন। অনেকে তো এক কাঠি সরেস হয়ে যে বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল তার ধারে কাছে না গিয়ে দিয়েছেন নিজের মর্জিমতো উত্তর। আসুন দেখে নিই তাদের সেই অদ্ভূতুড়ে ভিডিওগুলো।

 

১. মিস ইউএসএ টিন ২০০৭

তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, যে সম্প্রতি একটি পোলে দেখে গিয়েছে যে আমেরিকার এক পঞ্চমাংশ নাগরিক পৃথিবীর মানচিত্রে ইউএসএকে খুঁজে পান না। এ ব্যাপারে আপনার মন্তব্য কী? এর উত্তরে প্রতিযোগী রীতিমত পৃথিবীর শিক্ষাব্যবস্থা নিয়ে টানা হ্যাচড়া শুরু করে দিয়েছিলেন। পুরোটি ভিডিওটিতে দেখুন।

 

২. মিস ইতলি ২০১৫

আপনাকে যদি পিছনে ফিরে গিয়ে কোন একটা সময়ে বসবাস করতে বলা হয় তখন নিশ্চয়ই আপনি যাই হোক কোন বিশ্ব যুদ্ধের সময়কে বেছে নিবেন না। আপনি আমি না নিলে কী হবে? মিস ইতালি প্রতিযোগিতার বিজয়ী কিন্তু বেছে নিয়েছেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময়কে। ১৯৪২ সালকে বেছে নেবার কারণ হিসাবে তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ নিয়ে পাতার পর পাতা পড়েছি, সেই সময়ে যেতে পারলে মন্দ হত না। যেহেতু আমি একজন মেয়ে তাই আমি যুদ্ধে না গিয়ে ঘরে বসে থাকতাম।’

 

৩. মিস অ্যারিজোনা ২০০৯

প্রশ্ন- আপনি কী মনে করেন আমেরিকার নাগরিক হিসাবে সবার জন্য স্বাস্থ্য সেবা চালু করা উচিৎ?

উত্তর- আমি আপনার প্রশ্ন বুঝতে পেরেছি এবং আমি উত্তর দিতে অস্বীকার করছি; এবং সবার নিজের মতামত দেবার অধিকার আছে… (চলমান অ্যা উ ক্যা কু)



৪. ইউনাইটেড স্টেস্ট অফ হাওয়াই

তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, আমেরিকান নাগরিক হিসাবে তিনি কেন গর্ববোধ করেন? উত্তরে তিনি কেন আমেরিকান নাগরিক হিসাবে কেন গর্ববোধ করেন সেটা না বলে রীতিমত তার প্রদেশের গুনগাণ গাওয়া শুরু করে দিলেন। ব্যাপারটা প্রশ্ন কমন না পড়লে আমরা পরীক্ষায় খাতায় যেভাবে গোঁজামিল দেই, অনেকটা তেমন!

 

৫. মিস ইউতাহ ২০১৩ এবং বেতন বৈষম্য

প্রশ্ন ছিল, ‘সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে দেখা গিয়েছে ৪০% সন্তানসহ পরিবারের প্রধান উপার্জনক্ষম হচ্ছে মেয়েরা। কিন্তু তার পরেও মেয়েদের বেতন ছেলেদের তুলনায় কম। সামাজিক এই অবস্থা নিয়ে আপনি কী বলবেন?’

উত্তরে প্রতিযোগী বেতন বৈষম্যের আশপাশ দিয়েও না হেঁটে সোজা শিক্ষাব্যবস্থার মূল উৎপাটনে লেগে পড়লেন...



৬. সাবেক বিশ্ব সুন্দরী জাজের আনস্মার্ট প্রশ্ন

২০০১ মিস ফিলিপিনস প্রতিযোগীতা চলছে। মঞ্চে তখন টিনএজ প্রতিযোগী জেনি অ্যন্ডারসন। প্রশ্ন করবেন সাবেক মিস ইউনিভার্স  গ্লোরিয়া ডিয়াচ। প্রতিযোগীতা জেনি অ্যন্ডারসন শুরু থেকেই বেশ নার্ভাস ছিলেন। গ্লোরিয়া ডিয়াচ প্রশ্ন করে বসলেন ‘তোমাকে যদি সৌন্দর্য এবং স্মার্ট এর মধ্যে একটিকে বেছে নিতে বলা হয় তাহলে তুমি কোনটাকে নিবে?’

একজন সুন্দরী প্রতিযোগিতায় আসা টিনএজ মেয়েকে এমন প্রশ্ন করা হাস্যকর বটে।

৩৫৬৬ পঠিত ... ১৯:৩৫, অক্টোবর ০১, ২০১৮

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top