যদি eআরকিতে লিখতে চান...
eআরকির বিভিন্ন লেখা পড়ে কি প্রায়ই কান্না পায় আপনার, বালিশ ভিজিয়ে ফেলেন দুচারটা? অথবা মনে হয়, আরে ধুর কি লেখে লোকজন। আমি তো বাঁ হাতেই এর চেয়ে বেশি ভালো লিখতে পারি? খালি লিখতে বসি না বলেই এইসব আজেবাজে লেখকরা লেখালেখি করে নাম কামিয়ে ফেলছে। যদি শুরু করি, তাহলে একটাও ভাত পাবে নাকি! ...যদি এই হয় আপনার অবস্থা তবে গাছে কাঁঠাল আর গোফে তেল না দিয়ে আজই হাতে তুলে নিন কীবোর্ড। 

 


কী নিয়ে লিখবেন?

এই প্রশ্ন না করে বরং কী নিয়ে লিখবেন না সেই প্রশ্ন করতে পারেন। একটু ভালো করে খেয়াল করে দেখুন কোনসব বিষয়ে লেখা প্রকাশিত হয় না eআরকিতে, সেই সব বিষয় ছাড়া আর সকল বিষয়ে লেখা, আইডিয়া, কার্টুন, কমিকস, ছবি বা যা ইচ্ছে তাই পাঠান। হাসির বা স্যাটায়ার। দয়া করে খেয়াল রাখবেন আপনার পিএইচডি থিসিস বা দেশ রাজনীতি নিয়ে আপনার মহামূল্যবান লেখা যেন আমাদের দপ্তরে চলে না আসে। কোন অবস্থাতেই আমরা প্রবন্ধ টাইপ লেখা আর ফেরত দেই না।

লেখা কীভাবে পাঠাবেন?  

লেখা পাঠানোর অনেকগুলো সিস্টেম আছে আমাদের। তবে একটা ছাড়া বাকি আর কোন সিস্টেম এখনও কাজ করছে না। কাজেই অনেক অপশন থাকলেও সবচেয়ে কার্যকরী অপশনটাই আপনার বেছে নেওয়া বুদ্ধিমানের কাজ হবে বলে আমরা মনে করি। লেখা মেইল করুন lifeatearki@gmail.com এই ঠিকানায়। মেইলের সাবজেক্ট লাইনে লিখুন কী বিষয়ে আপনি লিখছেন। এরপর আপনার লেখা অ্যাটাচ করে আলতো করে সেন্ড বাটনে চাপ দিন। কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে লেখা চলে আসবে আমাদের দপ্তরে। প্রকাশ উপযোগী হলে এক সেকেন্ড থেকে সর্বোচ্চ এক সপ্তাহের মধ্যে আপনার লেখা প্রকাশ হয়ে যাবে।

 

মনে রাখুন তিনটি জিনিস  

যতই কষ্ট হোক না কেন নিজের লেখা নিজেই লিখে পাঠান। গুগল মামার এই যুগে কপিক্যাট লেখা ধরে ফেলা কয়েক সেকেন্ডের মামলা। কোন অবস্থাতেই অন্যের লেখা কপি করে নিজের নামে পাঠাবেন না। একবার যদি প্রমানিত হয়ে যায় যে আপনি কপিক্যাট লেখক তাহলে আপনার কোন লেখা বা আইডিয়া আর কখনো eআরকিতে প্রকাশিত হবে না।

 


কোন অবস্থাতেই বাংলিশ বা রোমান হরফে বাংলা লিখে পাঠাবেন না। এভাবে পাঠালে আমরা লেখা পড়ি না (আইমিন পড়তে পারি না)। লেখা বা আইডিয়া পাঠান ইউনিকোডে অথবা সুতন্বীএমজে ফন্টে মাইক্রোসফট ওয়ার্ডে অ্যাটাচ করে।

 


আমরা জানি প্রতিটি লেখকের কাছেই তার নিজের লেখা মহামূল্যবান, এমনকি আমাদের কাছেও। তবুও অনুগ্রহপূর্বক লেখা পাঠিয়ে আমাদের তাগাদা দিবেন না। আমরা অতিরিক্ত তাগাদা পেলে নার্ভাস হয়ে খারাপ লেখা প্রকাশ করে ফেলি।  

 


সবচেয়ে আগ্রহব্যঞ্জক তথ্য হলো : eআরকিতে প্রকাশিত লেখা/আইডিয়ার জন্য রয়েছে সম্মানির ব্যবস্থা।  

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার

evolution22

Top