তামিম ইকবালের ঘূর্ণি প্রশ্নে কট এন্ড বোল্ড হলেন সাংবাদিক

১৯৫৫ পঠিত ... ১৭:০২, এপ্রিল ২০, ২০১৯

বাংলাদেশের হয়ে লাল-সবুজ জার্সিতে যখন তামিম ইকবাল ব্যাট হাতে নেমে আসেন মাঠে তখন যেকোনো বাংলাদেশি ক্রিকেট ফ্যান একটু হলেও নড়েচড়ে বসেন। বোলারদের উপর তামিমের চড়াও হবার দৃশ্য দেখা খেলার মাঠে বা টিভিতে একটা আনন্দের ব্যাপার। ক্রিকেটের তিন ফর্মেই বাংলাদেশের হয়ে সবচেয়ে বেশি রান করা তামিম বল হাতে যেন একেবারেই বিপরীতে অবস্থান করেন। সব মিলিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে বল করেছেন সাত ওভার। কিন্তু সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া তামিম ইকবালের একজন সাংবাদিককে সাক্ষাৎকার নেওয়ার ভিডিওটি দেখলে মনে হতেও পারে যে, চাইলে হয়ত বলটাও ভালো করতেন তিনি।

ভাইরাল ভিডিওটিতে দেখা গেছে তামিমের মুখোমুখি হয়েছিলেন একাত্তর টিভির স্পোর্টস রিপোর্টার সামসুল আরেফিন। অবশ্য নিজেদের ভূমিকা বদলে নিয়েছিলেন তারা। সবসময় ব্যাটে বা মুখে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দিয়ে আসা তামিম ছিলেন প্রশ্নকর্তা, আর সবসময়ের প্রশ্নকর্তা ছিলেন উত্তরদাতার ভূমিকায়।

তামিম শুরুতেই জানতে চান, খেলোয়াড়দের নিয়ে অদ্ভুত সব রিপোর্ট করে বিপদে ফেলে দেওয়ার রহস্যটা কী? কেন সাংবাদিকেরা এমন করেন? অনেকটা ম্যাচের প্রথম বলেই আচমকা বাউন্সারের মুখে পড়ে সামসুল আরেফিন যেন খানিকটা বিব্রত হয়েই আমতা আমতা করেন। হাতুড়েসিংহে কোচ থাকাকালীন সময়ের একটি ঘটনা নিয়ে এসেও প্রশ্ন করেন তামিম। সেটিকেও একটা ইয়োর্কারের সাথে তুলনা করলে খুব একটা ভুল হয় না।

বাংলাদেশের মানুষ এমনিতেই আবেগি, তাদের আবেগ নিয়ে ‘খেলার’ কারণ কি এমন প্রশ্নের উত্তরে এক পর্যায়ে সাংবাদিক বলেই বসেন ‘পুরো জাতি ইমোশনাল, তাই ইমোশনাল নিয়েই তো খেলতে হবে।’ এই পর্যায়ে ‘বোলার’ তামিম বেসামাল  ‘ব্যাটসম্যান’-এর দিকে শেষ বলটা ছুঁড়ে দেন। সাংবাদিকের খেলোয়াড় পরিচয় সামনে নিয়ে এসে যেন ওভারের শেষ বলে আরেকটা ছোবলের মতো বাউন্সার মেরে কট এন্ড বোল্ড করে দেন তামিম। মাশরাফি এই বিশ্বকাপে তামিমকে কোন এক ম্যাচে বল দিয়েও দেখতে পারেন। বলা তো যায় না, ইংলিশ উইকেটে কী করে বসেন তামিম।

 

১৯৫৫ পঠিত ... ১৭:০২, এপ্রিল ২০, ২০১৯

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top