র. বিকচেনতায়েভের মজার ডিটেকটিভ গল্প 'কঠিন পেশা'

১৭৮ পঠিত ... ২০:৩২, মে ১১, ২০১৯

অলংকরণ: ম্যাকবেথ নীল

 

নির্জন পথে দুজন এগিয়ে এল আমার দিকে। 

ছোটজন বলল, ‘ঘড়ি খোলো।’

‘এই নিন’, বললাম আমি। ‘পরতে থাকুন। তবে দেখবেন, পরে যেন আফসোস না হয়!’

‘আফসোস হবে না,’ ছোটজন বলল খুব ভাব নিয়ে।

তখন বড়জন জিজ্ঞেস করল, ‘পরে আফসোস হবে মানে?’

‘ঘড়িটার উল্টো পিঠে আমার পুরো নামের আদ্যক্ষর খোদাই করা আছে। অতএব আপনাদের মুহূর্তের মধ্যে ধরে ফেলা সম্ভব হবে।’ 

‘ঘড়িটা ফেরত দিয়ে দাও,’ বড়জন বলল ছোটজনকে, ‘আর মানিব্যাগটা নাও।’ 

‘এই নিন,’ বললাম আমি। ‘ব্যবহার করুন। তবে দেখবেন, পরে যেন আফসোস না হয়!’

‘আফসোস হবে না,’ ছোটজন বলল খুব ভাব নিয়ে।

তখন বড়জন জিজ্ঞেস করল, ‘পরে আফসোস হওয়ার কথা বলছেন কেন?’

‘টাকার ওপরে আমার হাতের ছাপ আছে। আর তা ছাড়া নোটগুলোর নম্বর ও সিরিজ আমার মনে আছে।’

‘বুঝতে পেরেছি,’ বলল বড়জন।

তখন বড়জনকে ছোটজন জিজ্ঞেস করল, ‘দিই ব্যাটার স্মৃতিশক্তি ড্যামেজ করে?’

‘কাজটা আমিই করতে পারি, কিন্তু হাতের ছাপ নিয়ে কী করব?’

দীর্ঘশ্বাস ফেলে ছোটজন মানিব্যাগটা ফেরত দিল আমাকে।

‘তাহলে ওভারকোটটা খোলো, হে অপরাধ-বিশেষজ্ঞ!’ গজগজ করে বলল বড়জন। ‘আর আফসোসের কথা বলার চেষ্টা করেই দেখো না শুধু!’

‘নিন,’ বললাম আমি। ‘পরতে থাকুন।’

‘এবারে কি আমাদের আফসোস হবে না?’ জিজ্ঞেস না করে পারল না ছোটজন। 

আমি কাঁধ ঝাঁকিয়ে বড়জনের দিকে ইঙ্গিত করলাম। কিছুক্ষণ দ্বন্দ্বে ভুগে সে অবশেষে বলল, ‘আচ্ছা, ঠিক আছে, বলুন।’

‘এই ওভারকোটটা বিশেষভাবে অর্ডার দিয়ে বানানো। অতএব এটা নিয়ে দূরে পালিয়ে যেতে পারবেন না।’

ক্ষমা চাইতে শুরু করল ছিনতাইকারী দুজন। তারপর সটকে পড়ার উদ্যোগ নিল।

‘দাঁড়ান,’ বললাম তাঁদের, ‘আপনাদের জুতো খুলে ফেলা প্রয়োজন। নইলে ট্রেস ধরে কুকুর আপনাদের খুঁজে বের করবে। তখন কিন্তু বলতে পারবেন না, আমি আপনাদের সতর্ক করে দিইনি।’

ছিনতাইকারীরা জুতো খুলে ফেলল।

‘এখানেই শেষ নয়,’ বললাম আমি। ‘কাপড়ও খুলে ফেলতে হবে। কাপড়ের বৈশিষ্ট্যগুলো আমি কিন্তু মনে রেখেছি।’

সব কাপড় খুলে শুধু অন্তর্বাস পরে দাঁড়িয়ে কাঁপতে লাগল তারা।

 ওদের দিকে তাকিয়ে আমি ভাবলাম, ‘তোমাদেরই দোষ, বাছাধনেরা! অ্যাত্তো-অ্যাত্তো ডিটেকটিভ পড়ে মাথাটা খেয়েছ!’

১৭৮ পঠিত ... ২০:৩২, মে ১১, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top