কর্পোরেট জগতের জন্য পাঠাও নিয়ে এলো নতুন অ্যাপ 'ছাটাও'

২২৬ পঠিত ... ১৭:৪১, জুন ২৬, ২০১৯

অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং সার্ভিস পাঠাও থেকে একই দিনে প্রায় সাড়ে তিনশ কর্মী ছাটাই করা হয়েছে। কোন প্রকার নোটিশ ছাড়া স্বাক্ষর নিয়ে ছাটাই করা হয় কর্মীদের। গত ২৫ জুন (মঙ্গলবার) এই ঘটনা ঘটে। খবর: সারাবাংলাডটনেট।

‘জন্মিলে মরিতে হবে, অমর কে কোথা কবে?’ কথাটি কর্পোরেট জগতে বদলে হয়ে যায়, ‘জয়েন করিলে ছাঁটাই হবে, পার্মানেন্ট কে কোথা কবে!’ কোম্পানির সুদিনে যেমন আকর্ষণীয় চাকরির ছড়াছড়ি থাকে, মন্দার দিনে আবার ছাঁটাই হওয়াও অস্বাভাবিক ঘটনা নয়। বাংলাদেশও এর ব্যাতিক্রম নয়। গ্রামীণফোন, বাংলালিংক ইত্যাদি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানসহ অনেক বেসরকারি কর্পোরেশনের কর্মী ছাঁটাইয়ের কথা আলোচনায় এসেছে প্রায়শই। আর এই কিছুদিন পরপর বিভিন্ন কর্পোরেট হাউজের এই চাকরি ছাটাইকে আরও সহজ করতে পাঠাও নিয়ে এলো নতুন সেবা ‘ছাটাও’!

কর্পোরেট এইচআরদের এই কর্মী ছাঁটাই করার বিশাল দায়িত্বের ভার কমাতে এগিয়ে এসেছে বিখ্যাত স্টার্টআপ কোম্পানি পাঠাও। কোন ঝামেলা ছাড়াই যেন বিভিন্ন কর্পোরেট হাউজ কর্মী ছাটাইয়ের কাজটি সম্পন্ন করতে পারে, সে লক্ষ্যেই নতুন এই সেবা দেওয়া হবে বলে জানান ছাটাও-এর মাতৃপ্রতিষ্ঠান পাঠাও-এর কর্তাব্যক্তিরা। পাঠাও-এর এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা বলেন, ‘ছাটাও সার্ভিসটি একবিংশ শতাব্দীর অন্যতম সেরা উদ্ভাবন। কর্মী ছাটাই করা খুবই ঝামেলার এক কাজ। এ নিয়ে এইচআর ডিপার্টমেন্টকে সবসময়ই অনেক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হয়। সেসব চ্যালেঞ্জ এখন আপনার কোম্পানির হয়ে নিব আমরা। কর্পোরেট হাউজের দুশ্চিন্তা আর নেই।’

জানা গেছে, বিভিন্ন প্যাকেজে আসছে ছাটাও। ছাটাও এর কর্মপদ্ধতি নিয়ে এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এক-দুইজন থেকে শুরু করে তিনশ বা এক হাজার, যত সংখ্যক কর্মীই আপনি ছাটাই করতে চান না কেন, সেজন্য আমাদের প্যাকেজ থাকবে। বিনা নোটিশে কোন ঝামেলা ছাড়াই আমরা কর্মী ছাটাই করে দিতে পারব। শুধুমাত্র আমাদের নতুন অ্যাপে গিয়ে রেজিস্ট্রেশন করিয়ে নিলেই চলবে।’ পাঁচশ বা হাজারখানেক কর্মীকে নির্বিঘ্নে ছাটাই করা সম্ভব কিনা, এমন সন্দেহ প্রকাশ করেছেন অনেকে। তবে অবিশ্বস্ত একটি সূত্র জানিয়েছে, ছাটাও-এর মাধ্যমে যাতে একসাথে অনেককে বরখাস্ত করা যায়, সেই লক্ষ্যেই পাইলট প্রজেক্ট হিসেবে পাঠাও থেকে প্রায় সাড়ে তিনশ কর্মীকে বিনা নোটিশে ছাটাই করা হয়েছে। অবিশ্বস্ত এই সূত্রটি আরও জানায়, পাঠাও-এর উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা তাদের পাইলট প্রজেক্টের ফলাফলে ছাটাও নিয়ে আশাবাদী। 

খুব শীঘ্রই ছাটাও অ্যাপটি গুগল প্লেস্টোর, অ্যাপস্টোরে পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছেন পাঠাও কর্তাব্যক্তিরা। উল্লেখ্য, পাঠাও এর আগে ‘লুটাও’ নামের একটি অ্যাপও লঞ্চ করেছিল। গত বছর প্রকাশিত সেই অ্যাপের মাধ্যমে সবার মোবাইলের কন্টাক্ট লিস্ট এবং ইনবক্সের কথোপকথন সংরক্ষণ করা যায়। 

২২৬ পঠিত ... ১৭:৪১, জুন ২৬, ২০১৯

Top