চট্টগ্রামের রাস্তায় দেখা গেলো বৃষ্টির মধ্যে পিচ ঢালাইয়ের নতুন প্রযুক্তি

৪৮৩ পঠিত ... ২২:৫৭, জুন ১৫, ২০১৯

১৫ জুন (শনিবার) বন্দরনগী চট্টগ্রামের বেশ কিছু স্থানে দেখা যায় এক অভিনব দৃশ্য। শহরের বেশ কিছু রাস্তায় বৃষ্টিতে ভিজে নেয়ে রাস্তার পিচ ঢালাই করতে দেখা যায় শ্রমিকদের। জানা যায়, পানিতেও পিচ ঢালাই করার নতুন প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন।

সাধারণ পিচের বিটুমিন ও অন্যান্য উপাদান পানির সংস্পর্শে বেশিদিন থাকলে খুলে পড়ে যেতে থাকে। তার উপর বৃষ্টির মাঝে পিচ ঢালাই করলে, তার ভিতর পানি জমা হয়ে খুব সহজেই তা নষ্ট হয়ে যায়। তবে এই অসাধারণ পিচ বৃষ্টি ও পানি রোধক বলেই জানতে পারা গেছে। এমন প্রযুক্তির খবর খুব দ্রুতই ছড়িয়ে পড়তে থাকে দেশব্যাপী। চট্টগ্রামের মুরাদপুর ফ্লাইওভারে সৃষ্ট ঝর্ণা দেখতে শহরে থাকা eআরকি প্রতিনিধি দল এই নতুন প্রযুক্তির খবর জানতে পেরে ছুটে চলে যায় চকবাজার এলাকায়। সেখানে গিয়ে দেখা যায়, প্রবল বর্ষণের মাঝেও অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন কর্মীরা।

আমরা তাদের কাছে জানতে চাই এই প্রযুক্তির কথা। দায়িত্বে থাকা এক প্রকৌশলী eআরকিকে জানান, ‘বাংলাদেশ বৃষ্টির দেশ। কখন কোথায় বৃষ্টি হয় তার কোন ঠিক ঠিকানা নাই। তাই আমরা নতুন টেকনোলজি বানাইছি, যাতে রোদ-ঝড়-বৃষ্টি যাই হোক কাজ যেন বন্ধ না থাকে।’ আবহাওয়ার পূর্বাভাসের এত আধুনিক প্রযুক্তির যুগে এমন বৃষ্টিরোধক বিটুমিন তৈরি করতে কেন হলো এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আরে ভাই, ওয়েদার ফোরকাস্ট ডেইলি ডেইলি দেখতে মনে থাকে নাকি! আর আপনারাই বলেন, দেশে গবেষণা হয় না। আমরা নতুন একটা গবেষণা করছি। আজকে সেইটার ইমপ্লিমেন্টেশন করলাম। আমরা নিশ্চয়ই সফল হবো।’

তবে কর্মীরা জানতেন না প্রযুক্তির কথা। এক কর্মী জানান, ‘কাজের মাঝে হুট করে দেখি বৃষ্টি হয়। বৃষ্টিতে তো রাস্তাটা ভিজে যাইতেছিল। তাই আমরা পিচ ঢালাই কইরা রাস্তাটারে বাঁচাইলাম। আপনারা এইটার প্রশংসা না কইরা, কেন যে সমালোচনা করতেছেন।’ আবার কেউ কেউ বলেন, ঢালাও বৃষ্টিতে ঢালাই দেওয়ার ব্যাপারে তাদের উপরমহল থেকে গ্রিন সিগন্যাল ছিল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সকাল দশটার দিকে চট্টগ্রামের চকবাজার, লাভলেইন ও বিভিন্ন এলাকার রাস্তায় পিচ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়। এরপর দুপুর বারোটার দিক থেকে প্রবল বর্ষণ শুরু হলে প্রস্তুত করে রাখা বিটুমিন দিয়েই ঢালাই কাজ চালিয়ে যাওয়া হয়। এই বিষয়টি নিয়ে ভিন্নমত দিয়ে কেউ কেউ বলেছেন, প্রস্তুত করে রাখা বিটুমিন রেখে দিলে তা নষ্ট হয়ে যায় তাই এমনটা করা হয়েছে। তবে এই রাস্তা যে কিছুদিনের মাঝেই আবার নষ্ট হয়ে আবারও একটি কর্মক্ষেত্র সৃষ্টি করবে তা নিয়ে সন্দেহ নেই অধিকাংশ মানুষেরই।

৪৮৩ পঠিত ... ২২:৫৭, জুন ১৫, ২০১৯

Top