শ্রীলংকা ও আফগানিস্তানের সাথে শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ে এগিয়ে পাকিস্তান

১০৬ পঠিত ... ২১:৫০, জুন ০১, ২০১৯

আজ বিশ্বকাপের তৃতীয় দিনের প্রথম ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে ১৩৬ রানে অলআউট হয় উপমহাদেশের দল শ্রীলংকা। আর এতে করে বিশ্বকাপে শেষের দৌড়ে পাকিস্তানের সাথে পাল্লা দিয়েও পারল না শ্রীলংকা। তাই শেষ স্থানের লড়াইতে এখনো পাকিস্তান সবার চাইতে এগিয়ে।

কার্ডিফের সোফিয়া গার্ডেন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টসে জিতে লংকানদের ব্যাট করতে পাঠান কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। প্রথমে ব্যাট করার সুযোগ পেয়ে যেন পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে যাওয়ার মিশনে নামে শ্রীলংকা। প্রথম বলে চার মারলেও জেমস হেনরির দ্বিতীয় বলেই এলবিডব্লু হয়ে মাঠ ছাড়েন লাহিরু থিরিমান্নে। কিন্তু এরপর কুশল পেরেরা ও করুণারত্নের ব্যাটে ভর করে বেশ ভালোই এগিয়ে যেতে থাকে শ্রীলংকা। কিন্তু এই জুটির রান যখন ৪২ তখন আউট হন পেরেরা। এরপর কিছু সময়ের মাঝেই আরও ৪ উইকেট চলে গেলে পাকিস্তানের করা এই বিশ্বকাপের সর্বনিম্ন ইনিংসের রেকর্ড হুমকির মুখে পড়ে।

তখনো উইকেটে করুণারত্নে। ইনি থিসারা পেরেরার সাথে মিলে দলের স্কোরকে ৬০ থেকে ১১২ রানে নিয়ে গেলে বেঁচে যায় পাকিস্তানের রেকর্ড। ১১২ রানে থিসারা পেরেরা আউট হয়ে গেলে ৩০ ওভারে ১৩৭ রানের মাথাতেই গুটিয়ে যায় লংকার ইনিংস। লংকান ব্যাটসম্যানরা হতাশ করেননি কোন কিউই বোলারকেই। নিউজিল্যান্ডের হয়ে বল করা ৬ বোলারই অন্তত একটি করে উইকেট পান। আর জবাব দিতে নেমে শুরুতে কিছুটা ধীরস্থির খেললেও দুই ওপেনার গাপটিল ও মুনরোর ফিফটিতে মাত্র ১৬ ওভারেই করে ফেলেন ১৩৭ রানের টার্গেট।

ম্যাচ শেষে শ্রীলংকাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন পাকিস্তানি অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ। কম রানের তালিকায় শীর্ষস্থানে থাকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘শ্রীলংকানদের ধন্যবাদ, আমাদের অবস্থানে ভাগ না বসানোয়। প্রতিবেশী দেশের না এমনই হওয়া উচিত!’ বিশেষ করে করুণারত্নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘সে আসলেই এক রত্ন। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ব্যাট করে আমাদের উপর যে করুণা সে করছে, তার ঋণ আমরা কখনোই শোধ করতে পারব না। তাই তাকে করাচীতে আমার বাড়িতে দাওয়াত দিয়ে রাখলাম।’ অবশ্য পাকিস্তানে শ্রীলংকান দলের উপর বোমা হামলার কথা মনে করিয়ে দিয়ে এই দাওয়াত করুণারত্নে প্রত্যাখ্যান করেছেন করুণারত্নে।

অন্যদিকে দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হয় আফগানিস্তান। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম দুই ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে ফেললে আবারও হুমকির সম্মুখীন হয় পাকিস্তানি রেকর্ড। তবে রহমত শাহ এবং নাজিবুল্লাহ জাদরানের ইনিংসে কেটে যায় পাকিস্তানের বিপদ। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত শ্রীলংকার রানও ছাড়িয়ে গেছে আফগানরা, সুতরাং এই বিশ্বকাপে সর্বনিম্ন স্কোরের দিক থেকে পাকিস্তানই ফার্স্ট থাকছে! 

১০৬ পঠিত ... ২১:৫০, জুন ০১, ২০১৯

Top