গেম অফ থ্রোনস ফিনালের স্পয়লার থেকে বাঁচতে গুহায় বসে ধ্যান করছেন মোদী

১৮৭ পঠিত ... ১৯:৫৯, মে ১৯, ২০১৯

শেষ হতে যাচ্ছে গত দশ বছরে বিশ্বজুড়ে জনপ্রিয়তম টিভি সিরিজ গেম অফ থ্রোনস। বাংলাদেশে গেম অফ থ্রোনসের শেষ এপিসোড অর্থাৎ 'ফিনালে' দেখা যাবে সোমবার ২০ মে। শেষ সিজনের গল্প ও ঘটনাপ্রবাহে ভক্তরা যতই বিরক্ত হোক, শেষ এপিসোডের স্পয়লার নিশ্চয়ই চায় না কেউ। স্পয়লারের ভয়ে আজ রাত থেকেই ফেসবুক ডিএক্টিভ করে আত্মগোপনে যাওয়ার কথা ভাবছেন অনেকে। তবে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ছাড়িয়ে গেছেন স্পয়লার-আতঙ্কিত সব গট-ভক্তদেরকেই! স্পয়লারের ভয়ে উত্তরাখন্ডের কেদারনাথের এক গুহায় বসে ধ্যান করছেন তিনি।

দুই কিলোমিটার নিজের পায়ে হেঁটে গেরুয়া রঙের বসনে ওই গুহায় যান মোদী। দুপুরের পর তিনি গুহায় ধ্যানে বসেন। ধ্যানে বসে তিনি কি নির্বাচনে জয়ী হওয়ার প্রার্থনা করছেন নাকি ইহা এক প্রকার নির্বাচনী স্টান্ট, তা নিয়ে চলছে বিস্তর গবেষণা। তবে অনির্ভরযোগ্য একটি সূত্রে থেকে জানা গেছে, এসব কিছুই নয়, বরং গেম অফ থ্রোনসের ফাইনাল এপিসোডের স্পয়লার থেকে বাঁচতেই তার এই গুহায় ধ্যানমগ্ন হওয়া।

এ ব্যাপারে জানতে আমাদের রাজনীতি ও টিভি সিরিজ বিষয়ক প্রতিবেদক তৎক্ষণাৎ অফিসের সিড়িঘরের এক চিপায় ধ্যানে বসে পড়ে। ধ্যানমগ্ন হয়ে আমাদের প্রতিবেদক পৌঁছে যান কেদারের সেই গুহায়। আমাদের প্রতিবেদক 'স্লামালিকুম', 'নমস্কার', 'মোদীজি', 'জয় মোদীজি' এমন নানান সম্বোধনে ডাকলেও (এমনকি ইউটিউব খুলে মুনিগণের ধ্যানভঙ্গ করার অব্যর্থ অস্ত্র রমণীর নৃত্যও প্লে করে ট্রাই করা হয়) মোদীজির চোখ খোলানো সম্ভব হয়নি। অতঃপর তাকে Valar Morghulis বলার সাথে সাথে তিনি চোখ খুলে 'Valar Dohaeris' বলে শ্লোগান দেন! এরপর কিছুক্ষণের জন্য মোদীজির সঙ্গে তার ধ্যান সংক্রান্ত আলাপ করার সুযোগ হয়।

অনেকেই বলছে আপনি ধ্যানে বসে নির্বাচনে জয়ী হওয়ার প্রার্থনা করছেন, আসলেই কি তাই? প্রশ্ন করতেই মোদীজি ব্র্যান স্টার্কের মতো কয়েক সেকেন্ডের জন্য চোখ উল্টে ফেলেন। এরপর বলেন, 'আই এম সামথিং এলস নাউ।' প্রধানমন্ত্রীর থোর্ন নয়, বরং আয়রন থ্রোন ব্যাপারেই তিনি বেশি আগ্রহী এমনটা জানিয়ে বললেন, 'আমি এখন অন্য সিংহাসনের খেলায় মজেছি।'

তাহলে কি স্পয়লার থেকে বাঁচতেই গুহার ভেতর ধ্যান করছেন? মোদীজি সম্মতি জানিয়ে বললেন, 'ফেসবুক, টুইটার কোথাও শান্তি নেই। নির্বাচনী প্রচারণার জন্য টাইমলি এপিসোড দেখতে পারছি না বলে একের পর এক স্পয়লার খেতে হচ্ছে।' যারা স্পয়লার দেয় তারা মনে মনে কংগ্রেস সাপোর্ট করে, এমন মতামত ব্যক্ত করে তিনি আরও বলেন, 'একটা ড্রাগন থাকলে ওদের ড্রাকারিস করে দিতাম।'

এই গুহায় বসে ফাইনাল এপিসোড কীভাবে দেখবেন, এমন প্রশ্ন করার সাথে সাথে তিনি চোখ উলটে আবারও স্বাভাবিক করে বলেন, 'আই ক্যান সি নাউ!'

নিজেকে ভারতের থ্রি আয়েড রেইভেন দাবি করে তিনি বলেন, 'ভারতের যেসব উন্নয়ন হয়েছে, হয়নি, হবে এবং কখনোই হবে না, সব আমি দেখেছি।' নির্বাচনে কি নিজের জয় দেখতে পাচ্ছেন, এমন প্রশ্নের উত্তরে বললেন, 'স্পয়লার দিতে চাই না। তবে আমিই জিতব, আই সোয়ার বাই দ্য ওল্ড গডস এন্ড দ্য নিউ। কিন্তু সেজন্য অল ম্যান মাস্ট সার্ভ, মানে মাস্ট ভোট।'

গেম অফ থ্রোনসের কোন ক্ষমতাবানের চরিত্রে নিজের ছায়া দেখতে পান, সার্সেই না ড্যানেরিস? এই প্রশ্ন শুনে তিনি হালকা ধমক দিয়ে বলেন, 'ইউ নো নাথিং, eআরকি প্রতিবেদক। অবশ্যই ব্র্যান স্টার্ক।'

সিড়িঘরের প্রচন্ড গরমে আর বসে থাকতে না পেরে ধ্যান ভেঙে আমাদের প্রতিবেদক উঠে পড়ার আগে মোদীজির কাছে বিদায় নেয়ার সময় তিনি তার দিকে তাকিয়ে বলেন, 'ইউ আর এ গুড ম্যান, eআরকি।'

১৮৭ পঠিত ... ১৯:৫৯, মে ১৯, ২০১৯

Top