মুড়িমাখায় জিলাপি মেশানোতে হুমকি বার্তা পেয়ে থানায় ডায়রি

১৯১ পঠিত ... ২৩:০৬, মে ১১, ২০১৯

[eআরকি একটি স্যাটায়ার ওয়েবসাইট। এখানে প্রকাশিত কোনো খবর বিশ্বাস করা তো দূরের কথা, অবিশ্বাসও করবেন না।]

মুড়ি মাখানোতে জিলাপি দেয়া উচিত নাকি উচিত না, এই নিয়ে তর্কে সারা দেশে টালমাটাল অবস্থা। এক পক্ষ মুড়ি মাখায় জিলাপি পছন্দ করেন, অন্য পক্ষ মুড়ি মাখায় জিলাপি দেয়াকে আদৌ কোনো সুস্থ মানুষের কাজ মনে করেন না। তবে এতদিন শুধু তা অনলাইনে তর্কাতর্কিতেই সীমাবদ্ধ ছিল। এবার সেই সংঘাত ছড়িয়ে পড়লো বাস্তবেও। একটি অবিশ্বাসযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, মুড়ি মাখানোয় জিলাপি মেশানোর কারণে হুমকির সম্মুখীন হয়েছেন একাধিক ফেসবুকার।

এর আগে মুড়িতে জিলাপি মেশানোর কারণে বন্ধুত্ব ভাঙা, ব্রেকাপ কিংবা ত্যাজ্যপুত্রের ঘটনার কথা শোনা গেছে। কিন্তু হুমকির ঘটনা এই প্রথম। ফেসবুকার ফয়সাল হোসেন জানান, 'মুড়িতে জিলাপি না মিশিয়ে আমি খেতেই পারি না। অনেক ঝাল লাগে। কিন্তু জিলাপি দিলে ভাল্লাগে। মুড়ি মাখায় জিলাপি মেশানো দিইনি বলে গার্লফ্রেন্ড ছেড়ে চলে গেছে, তবু আমি মুড়িতে জিলাপিকে ছাড়িনি। কিন্তু শেষমেশ আজ বিশাল বড় হুমকি পেলাম।'

স্বাধীন দেশে মুড়ি মাখানোতে জিলাপি খাওয়ার অধিকার সবার আছে, এমনটা জানিয়ে তিনি বলেন, 'আজ আমরা মুড়ি-জিলাপি হেটারদের ভয়ে রাস্তায় চলাফেরা করতে পারি না। মানবতা আজ কোথায়?'

সে সময় তার সাথে থাকা আরেক যুবক বলেন, 'থানায় জিডি করতে গিয়েও আমরা হয়রানি শিকার হয়েছি। গিয়ে দেখি ওসি সাহেব মুড়ি মাখানো খাচ্ছেন। আমরা আমাদের সমস্যা বলার সাথে সাথেই তিনি কনস্টেবলদের উদ্দেশে বলেন, আরে, তোরাই তাহলে তারা যারা মুড়ি মাখানোতে জিলাপি মেশায়? তোদের তো নগদে এরেস্ট করা উচিত। এই সেন্ট্রি...'

এই বিপদ থেকে ছুটে আসলেন কীভাবে, জানতে চাইলে ওই যুবক জানান, ওই সময় মুড়ি মাখানোতে জিলাপি পছন্দ করেন এমন এক এসআই এসে তাদেরকে থানায় ডায়রি করার কাজে সহযোগিতা করেন।

হুমকি পাওয়ার পর কি মুড়ি মাখানোতে জিলাপি মিশিয়ে খাওয়া বাদ দিয়ে দেবেন, এমন প্রশ্ন করলে ফয়সাল বলেন, 'প্রশ্নই আসে না। দরকার হলে বডিগার্ড নিয়োগ দেবো। প্রধানমন্ত্রীর কাছে নিরাপত্তা চাইবো। কিন্তু মুড়িতে জিলাপি খাওয়া বাদ দেয়ার প্রশ্নই আসে না।'

কিন্তু যে হুমকি পেয়ে থানায় জিডি করলেন, কী ছিল সেই হুমকি, দুই যুবকের কেউই তা জানাতে রাজি হননি। ধারণা করা যাচ্ছে, তাদেরকে পাইনঅ্যাপেল পিজ্জা খাওয়ানোর হুমকি দেয়া হয়েছে।

১৯১ পঠিত ... ২৩:০৬, মে ১১, ২০১৯

Top