বৈশাখী ফ্যাশন : এবারে তরুণদের পছন্দের শীর্ষে রেইনকোট শাড়ি ও রেইনকোট পাঞ্জাবি

৪২৩ পঠিত ... ২১:৪১, এপ্রিল ১৩, ২০১৯

এই বৈশাখে আকাশে এসেছে তুমুল ঝড়বৃষ্টি, আর এর সাথে সাথে বাজারে এসেছে সবার চাহিদা অনুযায়ী ছেলেদের জন্য রেইনকোট পাঞ্জাবি আর মেয়েদের জন্য রেইনকোট শাড়ি। পহেলা বৈশাখের দিন ঝড়বৃষ্টি হতে পারে, এমনটা মাথায় রেখেই বাজারে বেড়েছে এই দুটি পণ্যের চাহিদা।

বাচ্চা থেকে শুরু করে তরুণ-তরুণী বা আঙ্কেল-আন্টি, পহেলা বৈশাখের দিন বাইরে ঘুরতে যাওয়ার ব্যাপার এবার সবারই প্রথম পছন্দ এই রেইনকোট পাঞ্জাবি বা শাড়ি। দেখতে পাঞ্জাবি অথবা শাড়ির মত হলেও জিনিসগুলো আদতে রেইনকোট। হুটহাট বৃষ্টি শুরু হলে আলাদা করে ছাতা বা রেইনকোট বহন করা লাগবে না আপনার। আপনার পরনের পাঞ্জাবি বা শাড়িটিই আপনাকে বৃষ্টির হাত থেকে রক্ষা করবে।

এছাড়াও বৃষ্টি থেকে মাথাকে রক্ষা করতে ছেলেদের জন্য থাকছে রেইনকোট টুপি আর মেয়েদের জন্য রেইনকোট হিজাব। মঙ্গল শোভাযাত্রার জন্য স্পেশালভাবে বানানো হয়েছে বৃষ্টি নিরোধক রেইনকোট মুখোশ। এই মুখোশ মুখে দেয়া না গেলেও বৃষ্টি শুরু হলে মাথার ওপরে ধরে নিজেকে রক্ষা করা যাবে।

বৈশাখকে উপলক্ষ করে দেশি বিদেশি বিভিন্ন গার্মেন্টস তৈরি করেছে নানা ডিজাইনের এইসব রেইনকোট সামগ্রী। যার মধ্যে রেইনকোট পাঞ্জাবি আর শাড়ির বিক্রিই বেশি হচ্ছে বলে জানান বিক্রেতারা।

eআরকির বিশেষ টিম ঢাকার বিভিন্ন মার্কেট ঘুরে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সাথে কথা বলে এমনটাই জানতে পারেন। নিউ মার্কেটের একজন বিক্রেতা আমাদের প্রতিনিধিকে বলেন, 'এবারে হালকা কাজ করা সুতির রেইনকোট পাঞ্জাবি বেশি চলছে। সাথে মেয়েরা কিনছে একটু গাঢ় কালারের মধ্যে সিল্কের রেইনকোট শাড়ি।'

ঢাকা ভার্সিটি পড়ুয়া আদনান আহমেদকে দেখা যায় নিজের জন্য কিনেছেন হলুদ রঙের রেইনকোট পাঞ্জাবি। সাথে প্রেমিকার জন্য কিনেছেন লাল রঙের রেইনকোট শাড়ি। তিনি আমাদেরকে জানান, 'কাল সারাদিন দুজনে খুব ঘোরাঘুরি করব৷ বাট যেকোনো সময় বৃষ্টি হতে পারে এজন্যই এবারের স্পেশাল রেইনকোট ড্রেসই কিনে নিলাম। একটু ভারী আর উপরে পলিথিন দেয়া হলেও জিনিসটা খুব একটা খারাপ না।'

ধানমন্ডির সাদিয়া কিনেছেন লম্বা পাড়ের জরির কাজ করা জামদানী রেইনকোট৷ তিনি জানান, 'এই শাড়ির সুবিধা হলো গোসলের আগে চেঞ্জ করা লাগে না৷ শাড়ি পরেই গোসল করা যায়। পহেলা বৈশাখের দিন বৃষ্টি হলেও চিন্তা নেই। শাড়ি পরেই ঘুরতে পারবো নির্ভাবনায়।'

তবে যারা রেইনকোট পাঞ্জাবি আর শাড়ি বাজারে আসার আগেই নববর্ষের শপিং করে ফেলেছিলেন তারা যারপরনাই হতাশ। তাদের বলছি, হতাশ হওয়ার কিছু নেই। খুব সহজেই ঘরোয়া পদ্ধতিতে আপনার পাঞ্জাবি বা শাড়িটাকে রেইনকোট পাঞ্জাবি বা রেইনকোট শাড়িতে পরিবর্তন করতে পারবেন। তার জন্য যা করতে হবে সেটা হলো বাজার থেকে পলিথিন কিনে শাড়ি বা পাঞ্জাবির সাথে সেলাই করে জুড়ে দিন। জিনিসটা বাজারে পাওয়া রেইনকোট পোশাকের মত সুন্দর না হলেও বিপদে কাজ চলবে।

তরুণ-তরুনীরা এমন বৃষ্টি নিরোধক পোশাক বাজারে আনার জন্য প্রস্ততকারক প্রতিষ্ঠানকে ধন্যবাদ জানিয়েছে এবং ভবিষ্যতে মিরপুরের জলাবদ্ধতায় সাতার কাটার কথা মাথায় রেখে লাইফ জ্যাকেট মডেলের শাড়ি ও পাঞ্জাবি বাজারে আনার আহবান জানিয়েছে।

৪২৩ পঠিত ... ২১:৪১, এপ্রিল ১৩, ২০১৯

Top