অন্তত মঙ্গলবারে হাসুন : ১০টি মজার কৌতুক

২৫৬ পঠিত ... ১৮:০৯, এপ্রিল ২৯, ২০১৯

 

১#
বস: নেক্সট সপ্তাহ ছুটি চাচ্ছ মানে? ইয়ার্কি পেয়েছো?
কর্মচারী: স্যার, আমার বিয়ে।
বস: তোমার মতো একটা অপদার্থকে যে বিয়ে করতে যাচ্ছে সেই স্টুপিডটা কে?
কর্মচারী: স্যার, আপনার মেয়ে।

 

২#
: এই যে হিয়ারিং এইডটা দেখছো এটা আমার শালা বিদেশ থেকে এনে দিয়েছে। দারুণ শক্তিশালী। সব পরিষ্কার শোনা যায়।
: বাহ! কত দাম পড়লো।
: এখন? দশটা বাজে। 

 

৩#
: কোথায় গিয়েছিলেন গতকাল?
: কক্সবাজার।
: কি ব্যাপার সেলিমকে বললেন সিঙ্গাপুর গিয়েছিলেন, ফিরোজকে বলেছেন লন্ডন গিয়েছিলেন আর আমাকে বলছেন কক্সবাজার!
: তাও বুঝলেন না। পাবলিকের ওজন বুঝে জায়গার নাম বলি আর কি।

 

৪#
: গতকাল তোমার সাথে যে মেয়েটিকে দেখলাম, সে দেখতে একদম তোমার মতো। তোমরা কি যমজ বোন?
: না না, আমরা একই প্লাস্টিক সার্জনের কাছে গিয়েছিলাম।

 

৫#
: আমার ৫০০ ডলার দামের তোতা পাখিটি হারিয়ে গেছে। ওটা অনেক খেলা জানতো, কথা বলতে পারতো, গানও গাইতে পারতো।
: আহা... তুমি কি পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিয়েছিলে?
: না, ও তো এখনও পড়তে শেখেনি।

 

৬#
রেস্তোরায় খেতে বসে দুজনের কথোপকথন।
: তুমি কি জানো সম্প্রতি একজন পুষ্টিবিজ্ঞানী বলেছেন যে মানুষ যা খায় সে ধীরে ধীরে সেটাতেই পরিণত হয়?
: সত্যি? তাহলে এখনই প্রচুর রিচ ফুড অর্ডার করো।

 

৭# 
: নতুন গাড়িটার এক্সিডেন্টের পর তোর বাবা তোকে কি বললো রে?
: হুম... অশ্লীল  গালাগালগুলো বাদ দিয়ে বলবো?
: ইয়ে... হ্যাঁ... তাই বলো।
: তিনি একটা টু শব্দও করেননি।

 

৮#
দুই প্রবীণ আর্মি অফিসার গল্প করছেন।

: আমার সময় আমি এতো পটু ছিলাম যে যখন আমি রাইফেল কক করতাম তখন শুধু ক্লিক করে একটা আওয়াজ হতো কারণ আমার রাইফেল সব সময়ই থাকতো চমৎকার অবস্থায়।
: হুহ। আর আমি যখন রাইফেল কক করতাম তখন শুধু ঝননন করে একটা শব্দ হতো।
: ঝননন করে শব্দ হতো কেন?
: ওটা আমার মেডেলের শব্দ।

 

৯#
আর্মি ব্যারাকের ফ্রন্ট অফিসে এসে এক বৃদ্ধা বললেন- প্লিজ সার্জেন্ট জর্জকে একটু ডেকে দেবেন? ওকে বলবেন যে ওর আন্টি মার্থা এসেছে ওর সাথে দেখা করতে।

ডেস্ক অফিসার কিছুক্ষণ রেজিস্টার খাতা ঘেঁটে তাকে জানালেন, দুঃখিত, ও তো আপনার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের জন্য সাত দিনের ছুটি নিয়ে বাড়িতে গেছে।

 

১০#
এক ব্যক্তি সিএনজি ডেকে জিজ্ঞেস করলো, 'খিলগাঁ, রামপুরা, উত্তরা, ধানমন্ডি বা মহাখালি যাবে?' কিন্তু ড্রাইভারের হ্যাঁ সূচক উত্তর পেয়েও সে অন্যদিকে হাঁটা দিল।
সিএনজি ড্রাইভার অবাক হয়ে তাকে জিজ্ঞেস করলো, ঘটনা কী?
: না, আসলে আমি মিরপুরে যাবো, কিন্তু সেখানের নাম শুনলেই সবাই একবাক্যে না করে দেয়। তাই ভাবলাম বাকি সব জায়গায় নাম বলে দেখি যদি সেখানে না যায় তাহলে নিশ্চয় মিরপুরে যাবে...

২৫৬ পঠিত ... ১৮:০৯, এপ্রিল ২৯, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top