আইপিএলে আশ্বিন কাণ্ডের পর টুইটারে ভারতীয়দের 'বাটলার বিভ্রান্তি'

১১৯৯ পঠিত ... ১৩:৫৫, মার্চ ২৮, ২০১৯

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) গ্রুপ পর্বের ম্যাচে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দেয়া ১৮৫ রানের টার্গেটে ব্যাট করছিল রাজস্থান রয়্যালস। ক্যাপ্টেন রাহানে আউট হয়ে গেলেও সাঞ্জু স্যামসনকে নিয়ে দুর্দান্ত ব্যাট করে যাচ্ছিলেন ইংলিশ ক্রিকেটার জস বাটলার। ইনিংসের ১৩তম ওভারের শেষ বল। বাটলার তখন নন স্ট্রাইকে ৪৩ বলে ৬৯ রানে অপরাজিত। পাঞ্জাবের ক্যাপ্টেন আশ্বিন বল করতে এগিয়ে গেলেন। সাধারণ রিফ্লেক্সেই বোলারের সাথে সাথেই ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে আসলেন বাটলার। আর আশ্বিন বল ডেলিভারি না করে কয়েক সেকেন্ড অপেক্ষা করে স্টাম্পের বেল ফেলে দিলেন। আরেকবারের মতন ইতিহাস দেখল ‘মানকড়’ আউট।

সাধারণত বোলার এমন ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতন ব্যাটসম্যানকে সতর্ক করে দেন। কিন্তু আশ্বিন এমনটা করেননি। নিয়ম বহির্ভূত কিছু না হলেও ‘ভদ্রলোকের খেলা’ ক্রিকেটে এমন ঘটনাগুলোকে দেখা হয় গেম স্পিরিটের পরিপন্থী হিসেবেই। তাই ক্রিকেট বিশ্ব মেতে উঠেছে আশ্বিনের সমালোচনায়। আবার একটা অংশ পেশাদারিত্ব এবং নানাবিধ বিষয়কে সামনে এনে বলছেন যে, আশ্বিন অধিনায়ক হিসেবে ভুল কিছু করেননি। অন্যদিকে ম্যাচটি হেরে গেলেও অসংখ্য সাবেক-বর্তমান ক্রিকেটার এবং ক্রিকেটভক্তের সহমর্মিতা পেয়েছেন জস বাটলার, পাশাপাশি যদিও কটু কথাও শুনতে হয়েছে অনেক পাঞ্জাব এবং আশ্বিনভক্তের কাছ থেকে। জস বাটলারের পাশাপাশি টুইটারে এমন প্রতিক্রিয়া পেয়েছেন আরো দুই বাটলার।  

ঐ দুই বাটলার হচ্ছেন জশ বাটলার। একজন ইংল্যান্ডেরই। তিনি পেশায় একজন ডিজে। আর অন্যজন অস্ট্রেলিয়ান। তিনি সিডনির একটি সংবাদমাধ্যমে কাজ করেন। ক্রিকেটার জস বাটলারের নামের ইংরেজি বানান হচ্ছে ‘Jos Buttler’ আর ডিজে জশ বাটলারের নাম ইংরেজিতে ‘Josh Butler’. আবার সাংবাদিক জশ বাটলারের নাম ইংরেজিতে ‘Josh Butler’.

এতো কাছাকাছি নাম পেয়ে বিভ্রান্ত হয়ে গিয়ে টুইটারে সাংবাদিক এবং ডিজে বাটলারদের ট্যাগ করে টুইট করছেন অনেক ক্রিকেটভক্ত। আর ক্রিকেটের মানুষ না হয়েও এতো এতো খেলা সংক্রান্ত কথায় নিজেকে দেখে নিশ্চয়ই কিছুটা বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছিলেন তারা। তাই ডিজে বাটলার একটি টুইটে বলেন ‘টুইটারে আমার সাথে এমনটা কখনো হয়নি। ক্রিকেট বিশ্বে কী হয়েছে নিশ্চিত না, কিন্ত আমি জস বাটলার নই। আমি হলাম জশ বাটলার।’

আরেক দিকে সাংবাদিক বাটলারকেও একটি টুইট করে বলতে হয়, ‘সকাল থেকেই ইন্ডিয়ান ক্রিকেট ফ্যানদের কাছ থেকে আমি মেসেজ, ট্যাগ এবং মেনশন পাচ্ছি। কেউ রাগান্বিত আবার কেউ সমর্থন দিচ্ছে। তারা সবাই আমাকে ইংলিশ ক্রিকেটার জস বাটলারের সাথে গুলিয়ে ফেলেছে। টুইটারে আমার একটা দিন গেল বলতে হবে।’ পাশাপাশি প্রচুর ফলোয়ারও পেয়েছেন এই অস্ট্রেলিয়ান। তাদের উদ্দেশে আরেকজ দফা টুইট করেন তিনি ‘ভারতীয় যারা আমার নতুন ফলোয়ার হয়েছেন তাদেরকে স্বাগতম। আপনার সম্ভবত আমার টুইট থেকে কিছুই পাবেন না। আগাম দুঃখ প্রকাশ করছি।’

দুইজনের টুইটের কমেন্টেই অনেকে রসিকতা করেছেন বিভিন্ন কিছু বলে। অনেকেই এসে মনে করিয়ে দিয়েছেন এর আগেও একাধিকবার ভারতীয়রা ভুল করে ‘উদোর পিন্ডি বুধোর ঘাড়ে’ চাপিয়ে দিয়েছিল। কিছুদিন আগেই সার্ফ এক্সেলের উপর ক্ষেপে গিয়ে ভারতীয়দের একটা অংশ প্লে স্টোরে মাইক্রোসফট এক্সেলের রেটিং কমিয়ে দিয়েছিল।  



১১৯৯ পঠিত ... ১৩:৫৫, মার্চ ২৮, ২০১৯

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

কৌতুক

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top