'তেইশ বছর ধরে রাস্তার পাশে হিসু করি, কিন্তু এমন আচানক দৃশ্য আর দেখি নাই'

২৬৯৫ পঠিত ... ১৬:৫২, জানুয়ারি ২০, ২০১৯

সোশ্যাল মিডিয়াতে একটা ছবি নিয়ে বেশ আলোড়ন উঠেছে৷ ছবিতে দেখা যাচ্ছে- বিয়ের আসরের বধূর মত পোশাক পরা একটি মেয়ে ঢাকার ফুটপাতে হেঁটে যাচ্ছেন। তার ঠিক সামনেই রাস্তার পাশে বসে জনৈক ভদ্রলোক 'হিসু' করছেন। সন্ধ্যার আলোতে সেখানে তৈরি হয়েছে এক পরাবাস্তব রহস্যময় পরিবেশ।

কিন্তু ঘটনাটা আসলে কী? এ ব্যাপারে জানতে আমরা ছুঁটে যাই ঘটনাস্থলে। খুঁজতে খুঁজতে আমরা পেয়ে যাই সেই প্রতক্ষ্যদর্শী ব্যক্তিকে। একটু দূরেই রাস্তার পাশে বসে তিনি হিসু করছিলেন। আমাদের দেখেই হাসিমুখে বললেন, 'দুইটা মিনিট খাড়ান ভাইজান। হালকা হইয়াই আসতেছি৷'

হিসু শেষে প্যান্টের জিপার লাগাতে লাগাতে তিনি হেসে বললেন, 'ছবিডা ভাইরাল হওনের পর থেইকা আপনাগো মত অনেকেই আসছে। সক্কলেই ঘটনা জানতে চায়।'

- হ্যাঁ, আসলে ঘটনা কী হয়েছিলো যদি একটু বলেন..
- সে এক বিরাট ইতিহাস ভাইজান। আমি খাইতেছিলাম বিড়ি। এর মধ্যে জম্মের মুতে ধরল। আগে মোতবো নাকি বিড়ি শ্যাষ করব ভাবতেছি। একবার ভাবলাম, বিড়ি খাইতে খাইতে মুইতা দেখি কেমুন লাগে। হেহেহে..
- তারপর? বিড়ি সাথে নিয়েই হিসু করতে বসলেন?
- না ভাইজান৷ ওই হিসু করারও একটা আদব আছে। ছবিতে তো দ্যাখছেন, আমি বইসা হিসু করি।
- হ্যাঁ তা তো অবশ্যই। আপনাকে দেখেই বোঝা যায় আপনি ভদ্রলোক। কিন্তু এরপর কী হল?
- এরপর ভাইজান বিড়িডা নিভায়া রাখলাম। (মৃদু হেসে) নিয়ত করলাম, হিসু কইরা আইসা আবার বিড়িডা ধরামু।

- তারপর?
- তারপর ভাইজান ( আঙুল উঁচিয়ে) আমি রাস্তার পাশে ওই জায়গায় বসলাম। আমার অতি প্রিয় জায়গা। এই রাস্তার পাশে আমি ওই একটা জায়গাতেই বসি। হিসু করতে করতে জায়গাটার উপ্রে মায়া হয়া গেছে।
- তারপর কী হল?
- এরপরই ঘটলো সেই ঘটনা। তেইশ বছর ধইরা রাস্তার পাশে হিসু করি, তয় এইরকম আচানক দৃশ্য আগে দেখি নাই। হঠাৎ দ্যাখলাম আকাশ থেইকা একটা হলুদ পরী নাইমা আসলো! সাক্ষাৎ রাজকন্যা! আহা!
- আপনি তখনও হিসু করছিলেন?
- জি ভাইজান। হিসু তহন শ্যাষ। ফোটা ফোটা পড়তেছে আর কি৷ তয় ভয়ে আমি উইঠা দাঁড়াইতেও পারতেছি না। হলুদ পরী তহনই আমার সামনে দিয়া হাঁইটা গেলো।
- কী দেখলেন তখন?
- দেখুম কি ভাইজান, আমি ঘেরাণ নিলাম! হিসুর গন্ধ কই যেন চইলা গেলো! জায়গাটা ভইরা গেলো ফুলের গন্ধে! যেন বেহেশতি ফুল! আহা! (মুগ্ধতায় লোকটার চোখ ভিজে উঠলো)
- পরী চলে যাওয়ার পর কী হলো?
- পরী যাওনের পরও আমি আধাঘন্টা বইসা থাকলাম। এর মধ্যে আবারো হিসু চাপলো। জীবনে প্রথম, এক বসায় দুইবার হিসু করলাম!

বলেই লোকটা আবারো রাস্তার পাশে ওই জায়গায় আবারো হিসু করতে বসলো। তখন সন্ধ্যা নামতে শুরু করেছে। জ্বলে উঠেছে রাস্তায় সব নিয়ন বাতি। হিসু করতে করতে লোকটা তাকিয়ে আছে আকাশের দিকে। তবে কি আজও আকাশ থেকে কোনো পরী নেমে আসবে?

২৬৯৫ পঠিত ... ১৬:৫২, জানুয়ারি ২০, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সঙবাদ

স্যাটায়ার


Top