আবহাওয়া অধিদপ্তরের রিপোর্ট থেকে যেভাবে আসল আবহাওয়া বার্তা ডিকোড করবেন

২৮৭ পঠিত ... ১৯:৫৬, এপ্রিল ৩০, ২০১৯

সারাদেশে চলমান দাবদাহ কমবে বলে জানিয়েছিল আবহাওয়া অধিদপ্তর। এছাড়া ২৭ এপ্রিল (শনিবার) বিকেলে হালকা ও মাঝারি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাসও দেওয়া হয়েছিল। খবর: সময়নিউজ (২৭ এপ্রিল)। ঘূর্ণিঝড় ফণীর আভাস পেয়ে আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে মাঝারি হালকা বৃষ্টিপাতসহ কালবৈশাখী এমনকি শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনার কথাও বলা হয়েছে। অথচ দেশের একমাত্র সিলেট ছাড়া আর কোন অঞ্চলে নেই বৃষ্টির দেখা। পুরো দেশ যেন হয়ে আছে উত্তপ্ত এক চুল্লি।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস শুনে অনেকেই দেখেছিলেন আশার আলো। অথচ সূর্যের প্রখর তাপে সব আশা যেন গলে বাষ্প হয়ে উড়ে উড়ে যাচ্ছে। আর আবহাওয়া অধিদপ্তর যেন ফিরে যাচ্ছে তাদের পুরনো ফর্মে, যে ফর্মের সাথে অনেকেই কিছুদিনের অনভ্যাসের কারণে তাল মিলিয়ে চলতে পারছেন না। তাই eআরকি নিয়ে এলো পূর্বাভাস সঠিকভাবে বুঝে নেওয়ার সহজ তরিকা।

১#

পূর্বাভাস: সারাদেশে হালকা ও মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে পারে। আকাশ সারাদিনই মেঘাচ্ছন্ন থাকবে।

 

যা বুঝবেন: আজ সারাদেশে বৃষ্টি হবার কোন সম্ভাবনাই নাই। প্রচণ্ড রোদ থাকবে, মেঘের কোন প্রশ্নই আসে না। অবশ্যই ক্যাপ, সানগ্লাস নিয়ে বের হবেন। সারাদিন প্রচুর পানি খাওয়ার বন্দোবস্ত যেন থাকে সাথে।

 

২#

পূর্বাভাস: আজ রাজধানীসহ দেশের কোথাও কোথাও বজ্রপাতসহ ভারী বৃষ্টিপাতের আশংকা করা যাচ্ছে। সারাদেশেই তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে।

 

যা বুঝবেন: আজ রোদ থাকবে। তাপদাহ কমার কোন সম্ভাবনাই নাই। যদিওবা কোথাও কোথাও আকাশে মেঘ থাকতে পারে, কিন্তু তাতে গরম কমবে না। কোথাও বৃষ্টি হলে, সেটিও হবে ঝিরঝির যা গরম বাড়াতে সাহায্য করবে।

 

৩#

পূর্বাভাস: কক্সবাজার উপকূল থেকে ১৪৮১ কিলোমিটার দূরে সৃষ্ট নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিয়ে ভারতের দক্ষিণ উপকূলে আঘাত হানতে পারে। এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলবর্তী জেলাগুলোয় ঝড় এবং ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। রাজধানীসহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলেও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে।

 

যা বুঝবেন: কক্সবাজার ট্যুর বাতিল করার কোন দরকার নেই। ঘূর্ণিঝড়টি সমুদ্রেই বিকল হয়ে যেতে পারে। আর সেটি ভারতে পৌঁছালেও তার প্রভাব পড়বে না আমাদের উপর। আজকেও আপনি সানগ্লাস, ক্যাপ এসব নিয়ে বের থেকে বের হবেন।

 

৪#

পূর্বাভাস: আজ দেশের কোথাও কোন বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। চলমান তাপদাহ আজকেও চলবে। তাপমাত্রা আরও দুই ডিগ্রি বেড়ে যেতে পারে।

 

যা বুঝবেন: আজ অবশ্যই ছাতা, রেইনকোট নিয়ে বের হবেন। ঢাকা বা চট্টগ্রামের মতো শহরের বাসিন্দা হলে, সাঁতার কাটার মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে রাখুন। ভুলেও মিরপুরের দিকে যাওয়ার কথা চিন্তা করবেন না আজ! আর তাপদাহ আজকে শেষ হতে যাচ্ছে বলে ধরে রাখতে পারেন।



৫#

পূর্বাভাস: আজ পুরো দেশে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাবে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে সবাইকে উষ্ণ থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

 

যা বুঝবেন: আজ খুব বেশি গরম কাপড় পরে বের হবেন না। ফুলহাতা জামা কাপড়েই চলে যাবে। বেশি ভারী কাপড় পরলে, সেটা সারাদিন হাতে বা ব্যাগে বয়ে বেড়াবার ঝামেলা পোহাতে হতে পারে।

 

৬#

পূর্বাভাস: আজ তাপমাত্রা হ্রাসের কোন সম্ভাবনা নেই। এই সপ্তাহে শৈত্যপ্রবাহ হওয়ার কোন আশংকা করা যাচ্ছে না।

 

যা বুঝবেন: ব্রেইস ইওরসেলফ! উইন্টার ইজ কামিং! লেপ কম্বল নিয়ে পারলে রাস্তায় বের হন। নিজেকে উষ্ণ রাখুন।

২৮৭ পঠিত ... ১৯:৫৬, এপ্রিল ৩০, ২০১৯

Top