ফেসবুক ও ইন্টারনেটের এই যুগে যুদ্ধ হলে যে ১০টি ঘটনা ঘটতেই পারে

১৭৫২ পঠিত ... ২০:৪৫, মার্চ ২৫, ২০১৯

বর্তমান প্রজন্মের একটা বড় অংশ যে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে এবং ইন্টারনেটকেও ভাল কাজেই ব্যবহার করে, এতে কোনো সন্দেহ নেই। তবে এই ফেসবুক ও ইন্টারনেটের যুগের যে ঝামেলা বেশ কিছু আছে, তাও তো ভুল নয়। ভার্চুয়াল জীবনের প্রতি অতি নির্ভরশীলতা থেকে শুরু করে সোশ্যাল মিডিয়ার যাবতীয় কুপ্রভাব এই প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের উপর ভালোরকমই জেঁকে বসেছে। একটু ভাবুন তো, এই সময়ে যদি দেয়া হত যুদ্ধের ডাক? দেশের জন্য যদি যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার প্রয়োজন হতো এই ইন্টারনেট-ফেসবুকের যুগে? সম্ভাব্য ঘটনাগুলো চলুন ভেবে ফেলা যাক...

কার্টুন: ম্যাকবেথ নীল

 

১#

১ম বন্ধু: তোরা আমার সাথে যুদ্ধে যাবি না?
২য় বন্ধু: ওটা তো নাস্তিকদের যুদ্ধ।
৩য় বন্ধু: ওটা ফ্যাসিবাদী যুদ্ধ।
৪র্থ বন্ধু: সবই শোডাউন।
৫ম বন্ধু: যাচ্ছি তো। ফেসবুকে ‘যুদ্ধ’ ইভেন্টে গোয়িং দিয়েছি।

 

 

২#

যোদ্ধা ১: সদরুল, তাড়াতাড়ি দৌড়া। একটু পরেই বোমা ফেটে ব্রিজটা উড়ে যাবে।
যোদ্ধা ২: দাঁড়া সেলফিটা তুলে নিই।

 

 

৩#

(আগুন লাগানো একটি বাড়ি থেকে সবাই পালাচ্ছে। সামনে একগাদা লোক ছবি তুলছে।)

লোক ১: (সামনের জনকে) ভাই, সইরা খাড়ান। আমি তুলতে পারতেছি না।
লোক ২: (গায়ে আগুন লাগা একটা লোককে ধমকাচ্ছে)। দেইখ্যা শুইন্যা দৌড় দিবেন না, মিয়া? দিলেন তো ক্যামেরাটা ফালায়া। লেন্সের দাম কি আপনে দিবেন?

 

 

৪# 

বন্ধু ১: দোস্ত, সর্বনাশ হয়ে গেছে। আমাদের ক্লাসের নীলাকে শত্রুরা ধরে নিয়ে গেছে।

বন্ধু ২: ওহ, সো স্যাড। তা দোস্ত, তুই জানলি কী করে? কোনো ভিডিও বেরিয়েছে? বেরোলে লিঙ্ক দিস তো। হেঃ হে, বুঝিস তো। ক্লাস-টাস বন্ধ। খুব বোরিং সময় যাচ্ছে আজকাল।

 

 

৫#

বাবা: এই... রাজাকাররা বাড়িতে আগুন দিয়েছে। তাড়াতাড়ি বের হ।
শুভ: তোমরা বের হও, বাবা। আমি ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দিয়ে নিই।

 

 

৬#

(চারিদিকে গোলাগুলির শব্দ আর মানুষের চিৎকার)

'ধুর! এতো নয়েজের ভেতর ফেসবুকিং করা যায়? আজকেই টুকিটাকি ডট কম থেকে একটা ভালো হেডফোন কিনতে হবে।'

 

 

৭#

পিচ্চি: মামা, আপনার স্টেনগানটা দেন না। কয়েকটা পাখি মারব।
যোদ্ধা: ছিঃ খোকা। পাখি মারতে হয় না। আর এটা ধরতে ট্রেনিং লাগে।
পিচ্চিঃ দেখেন মামা, লাইনে আসেন। আপনি যদি স্টেনটা আমাকে না দেন তাহলে আমি ফেসবুকে পাবলিক স্ট্যাটাস দিয়ে লিখে দেব আপনি আমাদের বাসায় আশ্রয় নিয়েছেন। টেটলু রাজাকারের ছেলে কিন্তু আমার ফলোয়ার লিস্টে আছে...

 

৮#

যোদ্ধা ১: ভাই, আমাদের রকি তো ব্রিজে বোমা ফিট করার সময় শত্রুদের হাতে ধরা পড়ে গেছে!
যোদ্ধা ২: সে কি! ওরা কি আগেই খবর পেয়ে গেছে? 
যোদ্ধা ১: জি ভাই, রকি মিশনে গিয়েই ফেসবুকে চেক ইন দিছে... ফ্রেন্ডলিস্টে মনে হয় কোনো রাজাকার ছিল... 

 

 

৯#

কমান্ডার: আমাদের এখনই একটা গেরিলা মিশনে যেতে হবে।
যোদ্ধা: ভাই আমি এখন পারবো না। আমার পাবজিতে খুব এমারজেন্সি একটা অ্যাটাক দেয়া লাগবে এখন। হাফ এন আওয়ার?

 

 

১০#

: মিশন সাকসেসফুল?

: ইয়েস স্যার, আমরা শত্রুপক্ষের সব পেজ রিপোর্ট করে বন্ধ করে দিছি।

১৭৫২ পঠিত ... ২০:৪৫, মার্চ ২৫, ২০১৯

Top