এই রোডে তোর ভাইয়ের রক্ত, বাসের চাকার তলে

১১৩৪ পঠিত ... ১৯:৪১, মার্চ ২০, ২০১৯

 

এই রোডে তোর ভাইয়ের রক্ত, বাসের চাকার তলে,

দু'বছর ধরে পিষিয়া চলেছে, কেউ কিছু না বলে।

এতটুকু তারে রোডে এনেছিনু সোনার মতন মুখ,

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনে কেঁদে ভাসাইতো বুক।

এখানে ওখানে ঘুরিয়া ফিরিতে ভেবে হইতাম সারা,

সারা পথ ভরি রক্ত-মজ্জা ছড়াইয়া দিলো কারা?

দুপুরবেলাতে সোনামুখ তার বাসের চাকায় ভরি,

জেব্রা ক্রসিং থেকে টেনে নিয়েছিলো নগরের পথ ধরি।

যাইবার কালে ফিরে দেখিবার সময় হয়নি অত,

সে কথা লইয়া চালকের বুকে কি জাগিয়াছে কোন ক্ষত?

 

এই রোডে তোর বাপজির পা, এইখানে তোর মা,

কাঁদছিস তুই? কী করবি দাদু! আইন যে মানে না।

 

এই রোডে ঘুমায় তোর ছোট ফুপু, সাত বছরের মেয়ে,

রক্তস্রোত বুঝি ভেসে এসেছিলো দোজখের দ্বার বেয়ে।

 

ওই দূর রোডে সন্ধ্যা নামিয়ে আন্দোলনের রাগে,

অমনি করিয়া পিষিয়া মরিতে বড় সাধ আজ জাগে।

মসজিদ হইতে আজান হাঁকিছে বড় সুকরুণ সুরে,

মোর জীবনের পথ-কেয়ামত ভাবিতেছি কত দূরে।

 

জোর হাতে দাদু প্রতিবাদ কর আন্দোলন বহমান,

ভেস্ত নসিব করিও সকল মৃত্যু ব্যথিত প্রাণ।

 

লেখা: মোহাম্মদ রমজান আলী

১১৩৪ পঠিত ... ১৯:৪১, মার্চ ২০, ২০১৯

Top