মোবাইল ফোন এবং টিভি ছাড়াই বাচ্চাকে ব্যস্ত রাখার ১০টি উপায়

১৭৯৬৬ পঠিত ... ১৫:৪৪, মার্চ ০২, ২০১৯

‘আজকালকার বাচ্চারা তো কথাই শুনতে চায় না’ এমন অভিযোগ তুলে মা-বাবারা বেশ অনেকদিন ধরেই বাচ্চাদেরকে ব্যস্ত রাখতে হাতে তুলে দিতেন টিভির রিমোট। আর গত কয়েক বছরে টিভির রিমোটের পাশাপাশি যুক্ত হয়েছে স্মার্টফোন। টিভি কিংবা স্মার্টফোন-ট্যাবে ডুবে থেকে বাচ্চারা আর কিছুই ঘাটায় না, এই ধারণা মোটামুটি প্রতিষ্ঠিত হয়ে গেছে। শিশুদের হাতে মোবাইল ফোন বা টিভির রিমোট দীর্ঘক্ষণ থাকাটা কেমন, সে বিষয়ে শিশু বিশেষজ্ঞ এবং মনোবিজ্ঞানীরা অনেক কথা বলেছেন। তবে eআরকি নিয়ে এসেছে এক সম্পূর্ণ অর্গানিক সমাধান। eআরকির শিশু বিষয়ক গবেষণা দল ভেবেছে মোবাইল ফোন এবং টিভি ছাড়াই বাচ্চাকে ব্যস্ত রাখার ১০টি অভিনব উপায়।

১# ঢিলা প্যান্ট পরিয়ে দিন। প্যান্ট টানতে টানতে আপনাকে বিরক্ত করার সময় পাবে না।

২# বাচ্চার বাবা অফিস থেকে ফিরলে বাচ্চাকে বলুন বাবার শার্টের বোতাম খুলে দিতে। (এক ঢিলে দুই পাখি। বাচ্চা প্লাস বাচ্চার বাবা দুইজন আধাঘন্টার জন্য সাইজ)

৩# এক কেজি মটরশুঁটি কিনুন। বাচ্চাকে সেগুলো খুলে বের করতে দিন। (খুবই উপকারী। বাচ্চা বেছে দেবে প্লাস খেতে চাইবে। লবণ দিয়ে সিদ্ধ করে খেতে দেন)

৪# খোসা সহ কমলা খেতে দিন। কমলার খোসায় হালকা ফুটা করে দিবেন নইলে কিন্তু বিরক্ত হয়ে আগেই ফেলে দিবে। কলা দিবেন না। খোসা ছাড়িয়ে কলা দিয়ে আলমারিতে পেইন্ট করবে।

৫# একটা বল আর প্লেট দিয়ে বলুন, বলের উপর প্লেট সাজিয়ে রাখতে। (তবে কাচ বা চিনে মাটির প্লেট দেবেন না যেন, অবশ্যই মেলামাইন!)

৬# নষ্ট রিমোট অথবা এসির রিমোট দিয়ে টিভি ছাড়তে বলুন আর টিভির রিমোট দিয়ে এসি। (সপ্তাহে একবারের বেশি করবেন না। এরা ধরে ফেলে) সবচেয়ে ভালো হয় টিভির একাধিক রিমোট রাখলে। তবে নিজে কনফিউজড না হতে চাইলে আসল রিমোটে কোনো চিহ্ন দিয়ে রাখুন।

৭# মুড়ি কখনো বাটিতে দেবেন না।পরিষ্কার ধোয়া চাদরে ছড়িয়ে দিবেন। মুরগির মত টুকে টুকে খাবে।

৮# বিরিয়ানি খেতে হাতে চামচের বদলে চপস্টিক তুলে দিন।

৯# পান্তাভাত খেতে বসুন। সন্তানকে নুন আনতে পাঠান। সে নুন আনতে আনতে তাড়াতাড়ি খাওয়া শেষ করে ফেলুন। আবার শুরু থেকে রিপিট করুন। আপনার সন্তান জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষাও থাকবে, সে ব্যস্তও থাকবে।

১০# কনুইয়ে নিজের নাক লাগাতে পারলে টিভি দেখতে দেবেন বলে চুক্তি করতে পারেন। (প্যারেন্টাল গাইডেন্সসহ। বেশি উদ্যমী বাচ্চার ক্ষেত্রে ঝামেলা হয়ে যেতে পারে!)


সতর্কতা

*৫ বছরের বেশি বয়সের বাচ্চাদের জন্য ট্রাই না করাই ভাল।

*এক ট্রিক্স পরপর দুইদিন না। ইভেন একদিনে দুইবারও না।

১৭৯৬৬ পঠিত ... ১৫:৪৪, মার্চ ০২, ২০১৯

Top