রুহামনামা ১ : চায়নার ধুলা গড়িয়ে এসে আমাদের দেশে পড়ে বলেই কি বাংলাদেশে এত ধুলা?

১৫৬৫ পঠিত ... ২২:৩০, জানুয়ারি ২৫, ২০১৯

[ছড়াকার রোমেন রায়হানের এগারো বছর বয়সী একমাত্র সন্তান রুহাম। একমাত্র হওয়ার কারণে রুহামের সারাদিনের গল্প, স্কুলের গল্প, বন্ধুদের গল্প সবই তার বাবা-মায়ের সাথে। হুট করে একদিন রুহামের বাবা খেয়াল করলেন, ছেলের কার্যকলাপ কিংবা কথাবার্তা তো বেশ মজার! তবে সমস্যা একটাই, রুহামের প্রতিদিনের মজার কর্মকান্ড দিন না ফুরোতেই তিনি ভুলে যাচ্ছেন। তাই পাঁচ বছর আগে হঠাৎ করেই একদিন সিদ্ধান্ত নিলেন, রুহামের পাকামি, বোকামি, দুষ্টুমিগুলো লিখে রাখার। রুহামকেন্দ্রিক সেই রচনাগুলো নিয়েই 'রুহামনামা'। যা পড়লে আপনি কখনো হাসতে হাসতে গড়িয়ে পড়বেন, নিজের ছোটবেলার কথা মনে পড়বে, অবাক হবেন বা কখনো মমতায় আপনার হৃদয় আর্দ্র হয়ে উঠবে।--সম্পাদক] 

 

 

হ ট জ ল

সব বাবা-মা তার সন্তানের কর্মকাণ্ডে শুধু মুগ্ধই হয় না, কখনও কখনও বিরক্তও হয়। আমাদের পুত্র রুহামের কর্মকাণ্ড বিশেষ করে লেখাপড়া মনে করিয়ে দেয় ‘হে মানবজাতি! তোমরা বড়োই অস্থির’। কত তাড়াতাড়ি পড়া শেষ করা যাবে সারাক্ষণ সেই চেষ্টা। আজকে ওর মা ওকে লিখতে দিয়েছিল রবি বাবুর কবিতার চার লাইন। খাতা চেক করার ভার আমার ওপর পড়ল এবং আমি দেখলাম ‘হাঁটুজল’ বানান ভুল। শব্দটিতে গোল্লা দিয়ে আমি বললাম--
আমি : রুহাম, এইটা কী লিখেছিস?
রুহাম : (জিভে কামড় দিয়ে) ইসসস... কিন্তু বাবা...
আমি : কী?
রুহাম : পুরা ভুল কিন্তু হয় নাই।
আমি : মানে!
রুহাম : হটজল তো ঠিকই আছে... হটজল মানে তো গরম পানি। বৈশাখ মাসে যা গরম পড়ে তাতে তো হটজলই হবার কথা।
আমি : (তব্দা মেরে) তাইলে ভুল হয় নাই?
রুহাম : আমার তো মনে হয় যে কবিতা লিখছে ওই ভুল করেছে...

এইরকম ত্যাঁদড় এন্ড বাঁদর বাচ্চা নিয়ে আমি কী করিব?

রুহামের সাথে রবীন্দ্রনাথের দেখা হলে তিনি সম্ভবত কবিতা এভাবেই লিখতেন

 

মা থা য়  ক ত  প্র শ্ন  আ সে 

মাথায় কত প্রশ্ন আসে! জ্বি, বাচ্চাকাচ্চাদের মাথায় প্রশ্ন আসার রেট সবচেয়ে বেশি। রুহামের বয়স যখন ৫/৬ বছর তখন থেকে শুরু অদ্যাবধি কত বিচিত্র প্রশ্ন যে মাথায় এসেছে! সেগুলোর উত্তর সহজ ভাষায় ওই বয়সের বাচ্চাকে দেওয়া যে কী কঠিন! উত্তর দিতে হিমশিম খাওয়া প্রশ্নের কিছু নমুনা দিচ্ছি--

পদার্থবিদ্যা

  • পৃথিবী তো ঘোরে, তাহলে আমরা পড়ে যাই না কেন?
  • আমরা কালার কোথা থেকে পাই? রেইনব থেকে নাকি আল্লাহ বানিয়েছে? (নিজে নিজেই) বুজেছি, আল্লাহ রেইনব বানিয়েছে আর আমরা রেইনব থেকে কালার পাই। (সঙ্গে সঙ্গেই সম্পূরক প্রশ্ন) আচ্ছা বাবা, আমরা যদি রকেট নিয়ে রেইনবতে যাই তাহলে কি কালার ধরতে পারব?
  • সিঁড়ি দিয়ে নামতে তো কষ্ট লাগে না, তাহলে উঠতে এত কষ্ট লাগে কেন?

 

চিকিৎসাবিদ্যা

  • আমরা তো ওষুধ মুখে খাই। তাহলে হাতের আঙুলের ব্যথা ভালো হয়ে যায় কীভাবে? 

 

জীববিদ্যা
রুহাম : বাবা! বাচ্চারা জন্মের আগে যে আল্লাহর কাছে থাকে! আল্লাহ এত এত বাচ্চা ম্যানেজ করে কীভাবে?
আমি : হুম, ম্যানেজ করতে কষ্ট তো হয়ই। এইজন্যই দুষ্ট বাচ্চাগুলোকে আগে আগে পৃথিবীতে পাঠিয়ে দেয়। যেমন তোকে পাঠিয়ে দিয়েছে।
রুহাম : ওহ! কিন্তু আল্লাহ কীভাবে বোঝে কোন বাচ্চা কাকে দেবে? (নিজে নিজেই) বুঝেছি বাবা মা’র চেহারার সঙ্গে স্লাইডিং করে দেখে ম্যাচ করে কী না। যদি ম্যাচ করে তাহলেই পাঠিয়ে দেয়। তাই না বাবা?


ভূগোল
রুহাম : (গ্লোব দেখিয়ে) বাংলাদেশের ওপরের দিকে এই যে এত বড়ো দেশ চায়না! ওখান থেকেই কী ধুলা গড়িয়ে এসে আমাদের দেশে পড়ে? এইজন্যই কি আমাদের দেশে এত ধুলা?

 

স্পোর্টস
রুহাম : বাবা, ধরো ব্যাটসম্যান জোরে মারল, বল সোজা বাউন্ডারির বাইরে চলে গেল, আর ব্যাটসম্যান স্ট্যাম্পের ওপর পড়ে গিয়ে স্ট্যাম্প ভেঙ্গে গেল। তাহলে কি সিক্স হবে? নাকি আউট হবে?
আমি : আউট হবে। সিক্স রান হবে না।
রুহাম : কেন? আগে তো বল মাঠের বাইরে গেছে তারপর স্ট্যাম্প ভেঙ্গেছে। তাহলে কেন সিক্স রান যোগ হবে না?

 

রু টি ন   

সব বাবা মা-ই নিজের সন্তানের গুণে মুগ্ধ। আমার ৮ বছর বয়সি পুত্র রুহাম স্কুল থেকে রুটিন তুলে এনেছে। কোনো সাবজেক্ট বোঝার জন্য তার সহজ সহায়ক চিত্র অংকন আমাকে মুগ্ধ করেছে। বুদ্ধি খারাপ না... 

রুহামের রুটিন

 

অ ন্ধ কা র  ভ বি ষ্য ৎ

রুহামের মা : (চিৎকার করে, রুহামের উদ্দেশে) তোর এত্ত বড়ো সাহস! আমার মোবাইল সরায়া তোর ট্যাব চার্জে দিছস! সব তোর বাপের দোষ। ছেলে কোথায় পড়বে... তা না, তার বাপ তারে খেলা শিখায়!... রুহাম তুই মনে রাখিস... তোর ভবিষ্যৎ অন্ধকার...
রুহাম : আমি লাইট জ্বালায়া বসে থাকব...

 

[রুহামের সর্বমোট ৮০টি নানা ধরণের কর্মকান্ডের গল্প নিয়ে চন্দ্রাবতী প্রকাশনী থেকে এবারের বইমেলায় প্রকাশিত হয়েছে বই 'রুহামনামা'। ঘরে বসে পেতে চাইলে কিনতে পারেন অনলাইন থেকে।] 

 

আরও পড়ুন-

রুহামনামা ২ : ওবাকের বাচ্চারা যখন মেঘের উপর গোসল করে, তখন যে পানি গড়িয়ে পড়ে ওটাই বৃষ্টি

১৫৬৫ পঠিত ... ২২:৩০, জানুয়ারি ২৫, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top