যেখানে সেখানে বিসিএসের বিদ্যা দেখাতে গেলে যেমন বিপদে পড়তে পারেন

১৬৩১ পঠিত ... ১৯:০৩, জানুয়ারি ০২, ২০১৯

ইদানিং দেশ-বিদেশ, সমাজ-রাজনীতি, সাহিত্য-সংস্কৃতি সবকিছু নিয়ে আমি খুব সচেতন। সবকিছু খুটিয়ে খুটিয়ে দেখার অভ্যাস। শেখ হাসিনার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কত ভোট পেয়েছেন, তাও টুকে রেখেছি। বলা তো যায় না, যদি বিসিএসে চলে আসে!

সেদিন পড়ার ফাঁকে তিন বন্ধু ঘুরতে বের হলাম। রাস্তার টংয়ে মাত্র বসেছি। জরুরি কল করা দরকার। ওদিকে ব্যালেন্সও দ্য গ্রেট সাহারা মরুভূমি। থ্রিজি-ফোরজি না থাকুক, অন্তত কল তো করা যায়! পাশের দোকান থেকে মাত্র রিচার্জ করে ঘুরেছি। একি! ঘুরে দেখি আমার দুই বন্ধুকে কয়েকজন মিলে বেদম পিটুনি দিচ্ছে। কিছু বুঝে উঠার আগে দেখি চোখের নিমিষে বিরাট বাহিনী হাজির। মাইর কারে কয়! আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা সবাই ইচ্ছেমত পেটাচ্ছে! একবার ভাবলাম উদ্ধার করতে যাই। নিজের চিড়েচ্যাপটা অবস্থা চোখে ভেসে উঠায় আর সামনে পা বাড়ালাম না!

বন্ধুদ্বয়ের ল্যাবড়াছ্যাবড়া অবস্থা। অবশেষে তারা ক্ষান্ত হলো। জটলা ভাঙলে আমি বন্ধুর কাছে গেলাম। আমাকে দেখে একজন ডাক দিল। 'কে হয় আপনার?' 'জ্বি বন্ধু'। গলা শুকিয়ে গেছে। এর বেশি কিছু বেরোল না। 'সাবধান করে দিয়েন আপনার বন্ধুরে। এরপর কোনদিন মুখ থেকে এরকম কিছু বের হইলে সোজা উপরে চালান করা হবে।'

ডিজাইন: মুবতাসিম আলভী

হাসপাতালে বিষন্ন বদনে বসে আছি। দুই বন্ধুর জ্ঞান আসি আসি করছে। 'তোদেরকে এরকম পিডানিটা দিল ক্যা ক দেহি', বন্ধুদ্বয়ের জ্ঞান ফেরার পর জিজ্ঞেস করলাম। 'আর কইস না। তুই তো জানোস আড্ডার সময় আমরা বিসিএস প্র‍্যাকটিস করি। আমি ফরিদরে জিজ্ঞাসা করতে যাচ্ছিলাম, উদ্ভট উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ কার রচনা। 'উদ্ভট উটের পিঠে চলেছে স্বদেশ' পর্যন্ত বলতে পারছি। এরপরই 'ওই ব্যাটা সরকারের সমালোচনা করোস', 'ওই ব্যাটা ষড়যন্ত্র করোস' এইসব বলে চারপাশ থেকে ধুপধাপ মাইর শুরু!'

১৬৩১ পঠিত ... ১৯:০৩, জানুয়ারি ০২, ২০১৯

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top