প্রশ্নগুলো আগেই ফাঁস না করে জিপিএ ফাইভ প্রাপ্তদের হেনস্থা করেছে টিভি সাংবাদিক

৬৯৬৪৫পঠিত ...১৪:০২, মে ৩০, ২০১৬


মাছরাঙা টেলিভিশনের এক রিপোর্টারের হাতে একদল সোনার ছেলে মেয়ে হেনস্থার শিকার হয়েছেন বলে জানা গেছে। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া এক রিপোর্টে দেখা যায় একদল ছেলেমেয়েকে আগে থেকেই প্রশ্নপত্র না নিয়ে দাতভাঙ্গা সব প্রশ্ন করছে এক রিপোর্টার। স্বাভাবিকভাবেই সেইসব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেনি তারা। এদের একজন অভিযোগ করেছে, ‘রিপোর্টার আংকেল বলেছিলেন ক্যামেরায় রেকর্ড করার আগেই প্রশ্ন দিয়ে দিবেন কিন্তু তিনি তার কথা রাখেননি। তিনি আমাদের হয়রানি করতে চেয়েছেন সেটা স্পষ্ট। এটা পূর্ব পরিকল্পিত।’

এ বিষয়ে মাছরাঙার রিপোর্টারের ফোনে ফোন করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, প্রশ্ন ঠিকই ফাঁস হয়েছিল কিন্তু রিপোর্টার ভুলে ‘ক’ সেট এর বদলে ‘খ’ সেট এর প্রশ্ন ধরেন। এর জন্যই এই ফলাফল বিপর্যয়।

তবে গত বছরের পাশ করা একজন গর্বিত জিপিএ ফাইভ জানান, ‘আমি ওই ভিডিওটি দেখেছি। এটা নিয়ে এত কথা হচ্ছে কেন বুঝতে পারছি না। পিথাগোরাস উপন্যাস লিখেন নাই এই কথা কেউ বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবে? তিনি হয়তবা একটা গভীর প্রেমের উপন্যাস লিখেছিলেন যেটার কথা আমরা কেউ জানি না। এভাবে জাতির এইসব ভবিষ্যতদের নিয়ে হাসাহাসি করবেন না।’

রিপোর্টে দেখা যায় একজনকে প্রশ্ন করা হচ্ছে, এসএসসি এর পুরো রুপ কি। এর উত্তরে সে জানায়, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট। এর প্রতিক্রিয়ায় শার্লক হোমসের বড় ভাই মাইক্রফট হোমস জানান--

 

এ বিষয়ে ওই থানার ওসি জানান, ‘সবাই কি সুন্দর সৃজনশীল উত্তর দিয়েছে। আপনিই বলেন, একজন ছেলে সৃজনশীল না হলে কি নেপালের রাজধানী নেপচুন বলতে পারে?’ এদের নিয়ে আরও হাসাহাসি চললে থানায় তিনি নিজ উদ্যোগে মামলা করবেন বলে তিনি জানান।

‘এদের ভবিষ্যত কি?’ এমন প্রশ্নের জবাবে জাতির মেরুদন্ড বিষয়ক মন্ত্রী ফুরুল ইসলাম ফাহিদ জানান, ‘এই প্রশ্নও যেহেতু আমাকে জিজ্ঞেস করার আগে ফাঁস করা হয় নাই, তাই আমিও এর উত্তর জানি না। তবে আমরা কি রকম একটি আত্মবিশ্বাসি জাতি গড়ে তুলছি সেটা নিশ্চয়ই বুঝতে পারছেন। এরা সবাই গর্বিত ভঙ্গিতে এই যে বলতে পারছে, আমিই জিপিএ ফাইভ। I am GPA 5. এটা আমাদের এই সরকারের এক বড় অর্জন।’


মূল ভিডিও দেখার আগে ভিডিওর কিছু চুম্বক অংশ--



হয়তবা সত্যি সত্যিই পাঁচ হাজার কোটি বছর আগে নেপালের রাজধানী ছিল নেপচুন। আমরা হয়তবা জানি না। আইনস্টাইন বলেছেন, ‘পৃথিবী রহস্যময়!’



প্রাচীন পুথি গবেষকরা হয়তবা একদিন আবিষ্কার করবে পিথাগোরাসের লেখা কোন নিটোল প্রেমের উপন্যাস। আমরা যে এত হাসাহাসি করছি সেদিন কি আমরা নিজেদের ক্ষমা করতে পারবো?
 


তবে সেরা সৃজনশীল উত্তর অ্যাওয়ার্ড গোজ টু...



এই সেই ঐতিহাসিক রিপোর্ট যেখানে সুক্ষ ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে সোনার ছেলেমেয়েদের হয়রানি করা হয়েছে। অনেকেই এটিকে ভারতীয় চক্রান্ত বলেও মনে করছেন--

৬৯৬৪৫পঠিত ...১৪:০২, মে ৩০, ২০১৬

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
    আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

    আইডিয়া

    গল্প

    রম্য

    সাক্ষাৎকারকি

    স্যাটায়ার

    
    Top