ভোটকেন্দ্রে মৃত আত্মীয়স্বজনের ভিড়ে ঢুকতে পারছেন না জীবিত ভোটাররা

২৭৯২ পঠিত ... ১৫:৪৮, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৯

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে উপনির্বাচন চলছে। একইসঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণ উভয় সিটির ১৮টি করে মোট ৩৬টি ওয়ার্ডে চলছে ভোট। তবে সকাল ৮টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত আড়াই ঘণ্টায় দুটি কেন্দ্রে কোনও ভোটই পড়েনি। অন্যান্য কেন্দ্রেও ভোটার উপস্থিতি খুব কম।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘ভোটাররা ভোট দেওয়ার উৎসাহ হারিয়ে ফেলেছেন এটা ঠিক নয়। সব জায়গাতেই ভোটারদের প্রচণ্ড ভিড়। সুন্দরভাবে ভোট হচ্ছে (বাংলা ট্রিবিউন)।

ভোটকেন্দ্র খালি, অথচ ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের ভিড়? এই কনফিউশনের জটিলতা সমাধানে আমাদের বিশেষ নির্বাচন প্রতিবেদক ছুটে চলে যান মহাখালির এক মহা-খালি ভোটকেন্দ্রে, যেখানে ভোটার না থাকায় প্রিজাইডিং অফিসারসহ ভোটগ্রহণের দায়িত্বে থাকা অন্যরা সবাই অলস সময় কাটাচ্ছেন। ভোটকক্ষে কাউকে খুঁজে না পেয়ে ক্যান্টিনে গিয়ে কিছু কর্মকর্তাকে চা-নাস্তা খেতে দেখা যায়। গরম চায়ে চুমুক দিতে দিতে নাম প্রকাশে অলসতা বোধ করা এক কর্মকর্তা জানান, 'প্রচুর ভোট পড়ছে। ব্যস্ততার ফাঁকে এক কাপ চা খেতে আসলাম। যে ওয়েদার...'

কিন্তু ভোটকেন্দ্রে তো কোনো ভোটার দেখা যাচ্ছে না, এমন প্রশ্ন করলে তিনি গলা নামিয়ে ফিসফিস করে বলেন, 'শশশ, এভাবে বলবেন না। ওরা চুপিচুপি আসে, চুপিচুপি ভোট দিয়ে চলে যায়। ওদেরকে ধরা যায় না, ছোঁয়া যায় না, স্পর্শ করা যায় না।'

তাহলে কি আপনি মৃত ভোটারদের কথা বলছেন, জানতে চাইলে তিনি গলা আরো নামিয়ে ফ্লোরের কাছাকাছি নিয়ে বলেন, 'উহু উহু... ওদেরকে মৃত বলবেন না। বলুন অশরীরী।'

এই পর্যায়ে আমাদের প্রতিবেদক অট্টহাসির গায়েবি শব্দ শুনতে পেয়ে একটু হন্টেড ফিল করায় ভোটকেন্দ্র থেকে দৌড়ে বেরিয়ে যান। অতঃপর কেন্দ্রের বাইরে আশেপাশের চায়ের দোকানে কিছু ভোটারদের ভিড় দেখা যায়। ভোট দিয়েছেন কি, জানতে চাইলে তাদের একজন বলেন, 'ভাই, ভোটকেন্দ্রে ঢুকতে ভয় লাগছে। আমি একবার উঁকি দিছিলাম, কী যে নিরিবিলি! পরিত্যাক্ত পুরোনো প্রাসাদের চাইতেও হন্টেড অবস্থা। লোকমুখে শুনলাম, ভোটকেন্দ্রে প্রচুর অশরীরী আত্মা ঘুরে বেড়াচ্ছে। ভোট দিতে যামু কি মরতে?'

আরেকজন ভোট না দিতে যাওয়া ভোটার আশপাশ দেখে নিয়ে আমাদের প্রতিবেদককে ফিসফিস করে জানালেন, 'আমি ভেতরে গেছিলাম ভাই। আমার মরহুম চাচার সঙ্গে দেখা হয়েছে, ভোট দিতে আসছেন। এমন ভয় পাইছি, খেইচ্চা কটা দৌড় দিয়া সোজা বাইরে। আপনার কোনো মৃত আত্মীয়স্বজন আছে? ভিত্রে যান, দেখা পাইবেন।'

কথা শেষ করে লোকটি একটি রহস্যময় হাসি হাসলে আমাদের প্রতিবেদক হাতে থাকা কাপের চা শেষ না করেই দ্রুত ওই জায়গা থেকে সরে পড়েন।

২৭৯২ পঠিত ... ১৫:৪৮, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০১৯

Top