জি সেফাত উল্লাহ, আমাদের আপনাকে হিংসে হয়

৬৭১৪ পঠিত ... ২২:১১, আগস্ট ১৫, ২০১৮

গত ১৪ আগস্ট লন্ডনের ইকোনমিস্ট গ্রুপের সাপ্তাহিক দ্য ইকোনমিস্ট বিশ্বের বসবাসের সবচেয়ে যোগ্য শহরের একটি তালিকা প্রকাশ করে। যেখানে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নকে হারিয়ে দিয়ে এবার প্রথম হয়েছে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা। অপরদিকে আমাদের রাজধানীও প্রথম দিকে থাকার দৌড়ে পিছিয়ে নেই। এই জাদুর শহর, প্রাণের শহর আমাদের ঢাকা, বসবাসের পক্ষে সবচেয়ে অযোগ্যর তালিকায় দ্বিতীয় হয়েছে। কালকে এই দুটি তালিকা প্রকাশের পরপরই বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে যায়। ঢাকা যে বসবাসের অযোগ্য হিসেবে দ্বিতীয় হয়েছে তা নিয়ে যেমন অনেকে অনেক কারণ বিশ্লেষণ করছে, তেমনি অন্যদিকে  ভিয়েনা কীভাবে প্রথম হলো তা নিয়েও অনেকে বিস্ময় প্রকাশ করছেন।

ফেসবুকে জারেফ আহসান নামের এক তরুণ স্ট্যাটাস দেন, ‘ভিয়েনার মতো একটা নেগেটিভ নামওয়ালা শহর কীভাবে ফার্স্ট হয়? আমাদের ঢাকা যে লিস্টে সেকেন্ড হইছে, সেই লিস্টে ভিয়েনা কিন্ত ঠিকই লাস্ট হইছে, এই ব্যাপারটাও মাথায় রাইখেন।’ এ ব্যাপারে পরে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান অনেক চিন্তা করেও তিনি ভিয়েনার ফার্স্ট হবার কোন কারণ খুঁজে পাননি। তিনি বলেন, ‘শুনছিলাম সেফাত উল্লাহ্‌ অস্ট্রিয়ার ভিয়েনাতে থাকে, সেইজন্যে ভিয়েনা ফার্স্ট হইতে পারে। আর তো কোন কারণ দেখিনা।’ শেরাটনের উল্টোদিকের এক গলিতে দাঁড়িয়ে বিয়ারে চুমুক দিতে দিতে তিনি বলেন 'উনার মতো লোক যেই শহরে থাকে, সেইটাই তো সবচেয়ে বাসযোগ্য হওয়ার কথা। আমাদের শহরে ওসব করা যায় বলাও যায়, তবে লাইভে না।'


ভিয়েনাতে কখনো গেছেন নাকি প্রশ্ন করলে তিনি জানান একবার গিয়েছিলেন। ভিয়েনাকে হিংসে হয় নাকি জিগ্যেস করলে তিনি বলেন, ‘হিংসে করার ব্যাপার এখানে না। কই আমাদের পারফর্ম্যান্সও তো খারাপ হয় নাই। আমরাও তো সেকেন্ড হইছি। আমাদের লিস্টে ভিয়েনা লাস্ট, কিন্তু ভিয়েনা যে লিস্টে ফার্স্ট, সেখানে তো আমরা লাস্ট না।’

সবশেষে তিনি বলেন, ‘হিংসে-ক্ষোভ-বিদ্বেষ এগুলো কখনোই ভালো ব্যাপার না। আর কোথাও ফার্স্ট-সেকেন্ড হওয়াটা বড় কথা না, অংশগ্রহণই মূল।’

৬৭১৪ পঠিত ... ২২:১১, আগস্ট ১৫, ২০১৮

আরও

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

আইডিয়া

গল্প

রম্য

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top