মুলতান টেস্টে ক্রিকেটিয় স্পিরিটের যে অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন মোহাম্মদ রফিক

১৯৫৯পঠিত ...২০:০৪, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১৮

২০০৩ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া বনাম শ্রীলংকার ম্যাচ। ম্যাচের ষষ্ঠ ওভারে অরবিন্দ ডি সিলভার বলে অ্যাডাম গিলক্রিস্টের প্যাডে বল লেগে ভেসে উঠল, আর কিপার কুমার সাঙ্গাকারা বলটিকে গ্লাভসবন্দী করে ফেললেন। শ্রীলংকান দল আউটের আপিল করলেও আম্পায়ার রুডি কোয়ার্টজেন তাতে সাড়া দেননি। কিন্তু ততক্ষণে অ্যাডাম গিলক্রিস্ট হাঁটা ধরেছেন প্যাভিলিয়নের পথে, আনন্দিত লংকান খেলোয়াড়রা।

গিলক্রিস্ট বুঝতে পেরেছিলেন বল তার ব্যাটে লেগে উঠে গিয়েছিল। অর্থাৎ আম্পায়ার আউট না দিলেও, তিনি আউট হয়েছিলেন। তাই নিজে থেকেই চলে গিয়েছিলেন। ক্রিকেটের পরিভাষায় একে বলে ‘ওয়াক’। বিশ্বকাপ সেমিফাইনালের মত এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে এমন কাণ্ড অস্ট্রেলিয়ান অনেকেই পছন্দ না করলেও ক্রিকেটিয় স্পিরিটের অনন্য উদাহারণ হয়ে আছে এটি।

পোর্ট এলিজাবেথের ঐ ঘটনার আর কয়েক মাস পর মুলতানে বাংলাদেশ আর পাকিস্তানের টেস্ট ম্যাচ হচ্ছে। ম্যাচের চতুর্থ দিনে বাংলাদেশের দেয়া ২৬১ রানের টার্গেটে ব্যাট করছিল পাকিস্তান। ৮ উইকেট চলে গিয়েছে, পাকিস্তানের জয়ের জন্য তখনো পঞ্চাশের বেশি রান দরকার। ইতিহাসের প্রথম টেস্ট ম্যাচ জয়ের সুবাস পাচ্ছে যেন বাংলাদেশ। এমন সময় মোহাম্মদ রফিকের একটা ডেলিভারির সময় নন স্ট্রাইকের ব্যাটসম্যান উমর গুল ক্রিজ ছেড়ে সামনে চলে গেলেন। রফিক দেখলেন এবং উমর গুলকে ডেকে আবার ফেরালেন। অথচ চাইলেই স্ট্যাম্প ভেঙে দিতে পারতেন, তাতে পাকিস্তানের হাতে থাকত আর একটি উইকেট।

নন স্ট্রাইকের ব্যাটসম্যানকে এভাবে আউটকে অফিশিয়ালি বলে রান আউট আর আনঅফিশিয়ালি বলে ‘ম্যানক্যাডিং’। ক্রিকেটিয় স্পিরিটে ম্যানক্যাডিং বিষয়টিকে ভালো চোখে দেখা হয় না। এতসব কেতাবি কথাবার্তা হয়ত মোহাম্মদ রফিক জানেন না, বোঝেন না। কিন্তু তিনিই রেখে যান অসাধারণ এক দৃষ্টান্ত।

সেই টেস্ট ম্যাচ জেতা হয়নি বাংলাদেশের। এ নিয়ে ক্রীড়া সাংবাদিক দেবব্রত মুখার্জী একবার মোহাম্মদ রফিককে জিজ্ঞেস করেছিলেন, ‘রফিক ভাই, রান আউটটা কেন করেননি?’ সাদাসিধে রফিকের হাস্যরত সরল উত্তর ছিল ‘লাভ কী হতো? আমরা ম্যাচ জিততাম। কিন্তু মানুষ আমাদের ছোটোলোক বলতো। আমরা তো ছোটোলোক না। কতো ম্যাচ জিতবো; ছোটোলোকি করে লাভ আছে!’

ঐ টেস্ট ম্যাচেই বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে অলক কাপালির ব্যাটে লেগে বল পিছনে গেলে মাটি থেকে বল তুলে পাকিস্তানি কিপার রশীদ লতিফ আউটের আপিল করলে আউট হন কাপালি। এক দিনের ব্যবধানে স্পোর্টিং স্পিরিটের দুই বিপরীত মেরুর ঘটনার সাক্ষী হয়ে আছে ক্রিকেট বিশ্ব।

১৯৫৯পঠিত ...২০:০৪, সেপ্টেম্বর ০৫, ২০১৮

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
    আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

    আইডিয়া

    কৌতুক

    রম্য

    সঙবাদ

    স্যাটায়ার

    evolution22
    
    Top