উকিলরা যদি আজ থেকে আদালতে RJ-দের মতো কথা বলা শুরু করে!

৭৪৫৮পঠিত ...১৫:০৭, আগস্ট ২৬, ২০১৬


এফএম রেডিওর বদৌলতে চারদিকে এখন এফএম ভাষার ব্যাপক ব্যবহার চলছে। আদালতের ভাষা রেডিও জকিদের মতো হলে কেমন হতো?



প্রথম উকিল : হ্যাল্লো, ডিয়ার জজ,গুড মর্নিং! আমাদের আজকের কেসের টপিক হচ্ছে 'মার্ডার'। আমার খুব খুব ফেবারিট একজন ক্লায়েন্ট 'মুরগি মনির' মার্ডার হয়েছে গত সপ্তাহে। মনিরের ছোট ভাই ইমিডিয়েটলি ফাইল করেছে একটি কেস। এখন কাঠগড়ার হট সিটে আছে আসামি 'টিপটপ জহির'। আমি এখন ইন্টারভিউ নেব কেসের একমাত্র সাক্ষী 'চোরা রাকিবের'। তো চোরা রাকিব...। 

দ্বিতীয় উকিল: অবজেকশন, কিউট জজ! আমার প্রতিপক্ষের উকিল কন্টিনিউয়াসলি কথা বলেই যাচ্ছে! সে তার কথার মধ্যে কোনো স্পেস দিচ্ছে না! ডিয়ার উকিল, প্রতিটি সেনটেন্সের শেষে একটি করে ছোট্ট স্পেস দাও, তোমার কথা বুঝতে আমার অন্নেক কষ্ট হচ্ছে। 

প্রথম উকিল: ওক্কে ডিয়ার উকিল, তোমাকে অন্নেক থ্যাংকস! আচ্ছা, চোরা রাকিব, মার্ডার হওয়ার জাস্ট আগ মোমেন্টে মুরগি মনির কী করছিল? 

সাক্ষী: উকিলস, তোমাদের দু'জনের সুইট ঝগড়া আমার কাছে জোস লাগছে। মার্ডার হওয়ার জাস্ট আগ মোমেন্টে মনির জট্টিল একটা গান গাইছিল। 

প্রথম উকিল : রাকিব, তুমি কি সেই গানটা একটু প্লে করবে? 

দ্বিতীয় উকিল: সরি, ডিয়ার উকিল! এটা কোনো সং রিকোয়েস্টের শো না। আমাদের পরের শুনানিতে 'সং রিকোয়েস্ট' করা যাবে। 

সাক্ষী: হাই, উকিলস! তোমরা যা-ই বলো না কেন, আমার মৃত ফ্রেন্ডকে ডেডিকেট করে আমি এখন সেই গানটি গাইব। এই গানটি শোনার জন্য আরো রিকোয়েস্ট করেছিল... 

দ্বিতীয় উকিল: সেই গানটি আমরা পরে শুনব। তার আগে তোমার কাছে ছোট্ট একটা প্রশ্ন, টিপটপ জহির কীভাবে ও কেন মনিরকে খুন করেছিল? 

সাক্ষী: ইন ফ্যাক্ট, ওদের দু'জনেরই অ্যাফেয়ার ছিল হিট-হট গার্ল শিরিনের সঙ্গে। শিরিন উইক হয়ে পড়ে মনিরের দিকে। দেন, জহির মনিরকে মার্ডার করে। 

প্রথম উকিল : হেই, ডিয়ার জজ! আপনি তো শুনলেন, হাউ অ্যান্ড হোয়াই টিপটপ জহির কিল্ড মুরগি মনির। এখন ১৮৬০ সালের 'পেনাল কোড' অনুযায়ী জহিরকে লাইফ-লং ইমপ্রিজনমেন্ট আপনি দেবেন কি না, ইটস আপ টু ইউ! 


দ্বিতীয় উকিল : সুইট জজ, আমাদের ইন্টারভিউ এখনো শেষ হয়নি। আপনার সঙ্গে আমরা আছি এক ঘণ্টা ধরে । থাকব আরো দুই ঘণ্টা। ততক্ষণ আপনিও আমাদের সঙ্গে থাকুন। সাক্ষীকে আমার আরো কিছু কোয়েশ্চেন ছিল... 

সাক্ষী: সরি, উকিল! আমি এখন সরাসরি চলে যাব ডমিনাস পিত্‍জায় ফ্রি পিত্‍জা খেতে। ডিয়ার উকিলস, আমাকে তোমাদের আর কোনো কোয়েশ্চেন থাকলে মোবাইলের মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করো 'মাই সাক্ষী'। একটি স্পেস দিয়ে লেখো তোমার নাম। তারপর আরেকটা স্পেস দিয়ে লেখো তোমার প্রশ্ন। তারপর পাঠিয়ে দাও আমার নম্বরে। দেখা হবে নেক্সট সোমবার, সেইম টাইম, সেইম কোর্টে। ততক্ষণ পর্যন্ত টেইক কেয়ার, হ্যাভ ফান...! 

৭৪৫৮পঠিত ...১৫:০৭, আগস্ট ২৬, ২০১৬

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
    আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

    কৌতুক

    গল্প

    রম্য

    সঙবাদ

    সাক্ষাৎকারকি

    স্যাটায়ার

    evolution22
    
    Top