হেলমেট পরেই বাইকভ্রমণের ফটোসেশন করার ৭টি অভিনব পদ্ধতি

১৪০৭ পঠিত ... ২১:০০, জানুয়ারি ০৮, ২০১৯

মোটরযান আইন ১৯৮৮ (সংশোধনী) অনুসারে, মোটরসাইকেল চালক ও আরোহীদের হেলমেট ব্যবহার বাধ্যতামূলক। কিন্তু আপনি যদি বাইকভ্রমণের ছবি তুলতে চান, সেক্ষেত্রে হেলমেট পরলে তো ছবিতে আপনার চেহারা দেখা যাওয়ার সুযোগ নেই! তবু, কথায় আছে ‘সেফটি ফার্স্ট’। তাই পরিচয় প্রকাশ পাবে না, চেহারা ঢেকে যাবে বা চুল নষ্ট হয়ে যাবে- এমন ভয়ে যেন কেউ হেলমেট পরিধানে অনাগ্রহী না হয়, সেজন্য হেলমেট পরেও চেহারা দেখানো বা পরিচয় প্রকাশ করার কিছু বিকল্প পদ্ধতি ভেবেছে eআরকি ফ্যাশন টিম।

১# স্পেস হেলমেট

প্রচারের সুবিধার্থে স্পেস হেলমেট ব্যবহার করতে পারেন মোটরসাইকেল চালকরা। এতে নিজের চেহারাও দেখানো হবে, অপরদিকে পুলিশ মামলাও দিতে পারবে না।

 

২# পলিথিনের হেলমেট

কিছুদিন আগে বাংলাদেশের এক রাস্তাতেই দেখা গিয়েছিল হেলমেটের বিকল্প হিসাবে পলিথিন মাথায় লাগানোর এক অনন্য নিদর্শন। সেই হেলমেট দিয়ে সুরক্ষা কতটা হবে তা নিশ্চিত না হলেও চেহারা থাকবে একদম ফোকাসের আওতায়।

 

৩# চেহারার আদলে হেলমেট নির্মাণ

চেহারা আড়াল হওয়া নিয়ে মনে যদি সংশয় থাকে, তবে বানিয়ে ফেলতে পারবেন নিজের চেহারার আদলে একটি হেলমেট। আসল চেহারা হেলমেটের নিচে থাকলেও আপনার মুখের আদলটি আরো বড় হয়ে প্রকাশ পাবে হেলমেটের গায়ে। কেউ আর আপনার চেহারা মিস  করার সুযোগই পাবে না।

 

৪# হলোগ্রাফিক পদ্ধতি

আপনার হেলমেটে থাকতে পারে হলোগ্রাফিক প্রজেকশন পদ্ধতি। এতে করে আপনি হেলমেটের নিচে থাকলেও আপনার চারপাশের মানুষ দেখতে পাবে আপনার চেহারার হলোগ্রাফিক ইমেজ।

 

৫# জার্সি পরিধান

খেলার মাঠে সবসময় চেহারা দেখে খেলোয়াড়দের আমরা চিনতে পারি না। তাদের পিঠে লেখা নাম ও জার্সি নাম্বার দেখে আমরা জানতে পারি কে কোথায় খেলছেন। তেমন করে মোটরসাইকেলে চড়ার আগেও যদি আপনার নাম ও নাম্বার সম্বলিত জার্সি পরে নিতে পারেন, তবে হেলমেটের কারণে আপনার চেহারা আড়াল হলেও সবাই জানতে পারবে, আপনিই যাচ্ছেন! এই ক্ষেত্রে ফটোসেশন না করে অডিওসহ ভিডিও করতে পারেন!

 

৬# যাতায়াতের পথে বিলবোর্ড ভাড়া

আপনার দৈনন্দিন যাত্রাপথে যেসব বিলবোর্ড থাকে, তা ভাড়া করে ফেলতে পারেন। আপনার যাত্রাকালে সেখানে আপনার বিস্তারিত পরিচয় উল্লেখ করা থাকলে, হেলমেট পরা নিয়ে কোন টেনশন থাকবে না। বাইকভ্রমণের যে ছবিই তুলবেন, খেয়াল রাখবেন ছবির ব্যাকগ্রাউন্ডে যেন আপনার পরিচয় লেখা বিলবোর্ডটি দেখা যায়! 


৭# বাইক-মাইক সাউন্ড সিস্টেম

নির্বাচনী প্রচারণা বা বিভিন্ন কোম্পানির নানা বিশেষ অফার ঘোষণা করতে রিকশার সামনে ও পেছনে মাইক বেঁধে রেকর্ড বাজানো আমাদের দেশে প্রচলিত একটি ঘটনা। আর এই ব্যবস্থায় অনুপ্রাণিত হয়ে বাইকেও লাগাতে পারেন কল-রেডি মাইক। আগেই নিজের বিবরণ রেডি করে রেকর্ড করিয়ে তা ছেড়ে দিতে পারেন আপনার বাইক মাইক সাউন্ড সিস্টেমে। এতে করে আপনার মুখখানি সবার নজরে না এলেও সবার কানে পৌঁছে যাবেন সহজেই।

১৪০৭ পঠিত ... ২১:০০, জানুয়ারি ০৮, ২০১৯

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

কৌতুক

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top