যেভাবে খুলবেন একটি সার্থক বা ‘রিয়েল ফেক আইডি’ : ১০ টি এক্সক্লুসিভ টিপস

১২৪১ পঠিত ... ১৫:৪৮, নভেম্বর ০৮, ২০১৮

আপনার যদি একটি ফেসবুক আইডি থাকে, তাহলে নিশ্চয়ই আপনি 'ফেক আইডি' ব্যাপারটা সম্পর্কে পরিচিত। যে ফেসবুক আইডিটি আসল বা প্রকৃত কোনো মানুষকে উপস্থাপন করে না, সেটিকে ফেক আইডি বলা যেতে পারে। যুগে যুগে মানুষ নানান কায়দা করে ফেক আইডি খোলার চেষ্টা করেছেন, সফলও হয়েছেন। কিন্তু যুগ বদলে যাচ্ছে। ফেক আইডি যারা খোলে, তারা যেমন 'রিয়েল' সাজার জন্য নতুন নতুন কৌশল প্রয়োগ করছেন, ফেসবুকারদের সেসব কৌশল ধরে ফেলার দক্ষতাও বাড়ছে। তাই যুগের সাথে তাল মেলাতে ফেক আইডি খোলার ক্ষেত্রে নিচের সতর্কতাগুলো অবলম্বন করলেই আপনি নিজের ফেক আইডিটিকে একটি সার্থক বা 'যথেষ্ট রিয়েল' আইডি হিসেবে চালিয়ে নিতে পারবেন!   

অলংকরণ: ঐশিক

১# আপনি ছেলে হন কিংবা মেয়ে, ফেক আইডি খোলার সময় 'মেয়ে আইডি' খোলাটাই সবচেয়ে নিরাপদ। কারণ বাংলাদেশে নারী-পুরুষ নির্বিশেষে ফেসবুকে মেয়েদের আইডির ডিটেইলস কেউই বিশেষ চেক করে না, অথবা চেক করে না পেলেও 'প্রাইভেসি' ভেবে ইগ্নোর করেন। তবে আইডি খোলার ক্ষেত্রে একটু আনকমন নাম ব্যবহার করবেন। সাদিয়া, নুসরাত আর আনিকা অনেক তো হইলো। অন্যদেরও তো একটু সুযোগ দেয়া উচিত, কি বলেন? আর দয়া করে নামের আগে 'এঞ্জেল' ব্যবহার করবেন না। এঞ্জেলদের অনেক কাজ আছে, তারা ফেসবুক চালায় না।

২# মেহজাবিনের ছবি প্রোফাইল পিকচার দিচ্ছেন কী মনে করে? আপনার ফেইক আইডি কি মেহজাবিনের মেলায় হারিয়ে যাওয়া বোন? মেহজাবিন, সাফা, আলিয়া ভাটের ছবি প্রোপিক দিবেন না ভুলেও। ডল পুতুলও চলবে না। এসবই ফেক আইডির লক্ষণ। আপনি যদি আপনার ফেক আইডিটিকে একটি সার্থক ফেক আইডি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চান, তাহলে কোনো রিয়েল মেয়ের ছবি ব্যবহার করুন। আবার শুধুমাত্র একটা ছবি আপলোড করে চুপ থাকলেও হবে না ভায়া। একই মেয়ের অনেকগুলো ছবি যোগাড় করে রাখতে হবে। আস্তে আস্তে আপলোড দিতে হবে। সব একবারে আপলোড দিলেও এক্কেবারে গেলো!

 ৩# আপনাকে যেমন বাঁচতে হলে জানতে হবে এইডস কি, ঠিক তেমনিভাবে ফেইক আইডি খোলার আগে জানতে হবে ঢাকা কলেজ আর নটরডেমে মেয়েরা পড়ে না। সুতরাং স্টুডাইড এট দিয়ে কোনো গার্লস স্কুল বা কলেজের নাম লিখুন। ভিকারুন্নিসা আর ডিইউ অনেক কমন হয়ে গেছে। অন্যকিছু ট্রাই করুন।

৪# আপনার জীবন কোনো ডিজনি মুভি নয়। তাই প্রোফাইলে ড্যাডিস প্রিন্সেস আর মাম্মিস হ্যান ত্যান লিখা থেকে বিরত থাকুন। এগুলো আইডি ফেক হওয়ার লক্ষণ। 'ওয়ার্কস এট ফেসবুক'ও লিখবেন না। তবে ফেসবুকে যদি আসলেই চাকরি পান অথবা 'এক্টিভ লাইকার'দের যদি ফেসবুক আসলেই কর্মী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়, তাহলে অন্য কথা।

৫# ইংরেজিতে নাম লিখে নামের উপরে জের যবর পেশ দেয়ার কোনো দরকার নাই। ফেসবুক আইডির নামের উপর নুক্তা দিলে কোনও বাড়তি সওয়াব পাওয়া যায়, এমন কোনো তথ্য কোথাও পাওয়া যায়নি। এছাড়াও অভিমানী অমুক, অবুঝ তমুক, সবুজ রাজকন্যা, গোলাপি রাজপুত্র টাইপ নাম না দিয়ে বাস্তবে কারো নাম হতে পারে, এমন কোনো নাম দিন। তাহলে হালকা পাতলা রিয়েল লাগবে আইডিটা। 

৬# ফ্যামিলি লিস্টে কয়েক হাজার মানুষ অ্যাড করবেন না। অল্প দুই একজনকে অ্যাড করুন। হাজার হাজার মানুষ অ্যাড করে ফেক আইডিরা। আপনিও ফেক আইডি ঠিক আছে কিন্তু আপনি তো একটি সার্থক ফেক আইডি মানে খুলতে চান, রাইট? অতএব নির্দেশনায় যা আছে তাই করেন। 

৭# মাঝেমাঝে ফিকশনাল (কাল্পনিক) কোনো বন্ধু বা বান্ধবীকে উদ্দেশ্য করে আহ্লাদী বা রাগ/ক্ষোভ সম্পন্ন স্ট্যাটাস দিন। ফেসবুক যেমন 'ক্যাপাচা' দিয়ে বোঝে আপনি রোবট নন, আপনার ফেসবুক বন্ধুরাও এসব দেখে বুঝবে আপনি ফেক নন, আপনার রিয়াল ফিলিংস আছে। উদাহরণ হিসাবে বলা যায়, 'সাবাহ কুত্তা আজকে তুই আমার সাথে কাজটা ভালো করিস নাই বান্দি।' অথবা 'সুমাইয়া বাবুটা আজকে কলেজে আসোনাই কেন? মিস করেছি জান' এরকম।

৮# স্ট্যাটাস, ফটো ক্যাপশন, বায়ো, ফেভারিট কোটস এগুলো নির্ভুল ইংরেজি বা বাংলায় লেখার চেষ্টা করুন। ফেক আইডিরা এসব লেখায় প্রচুর ভুল করে সবসময়। আর বায়োতে আনকমন কিছু লিখুন, অন্তত যেই তথ্যটি পড়লে আইডিটিকে একটি সত্যিকারের মানুষের মনে হয়! 'ডোন্ট প্লে উইথ মি আই এম প্লেয়িং বেটার দ্যান ইউ' টাইপ ভাবের কথাবার্তা না লিখলেই ভালো হয়। মানুষ ফেসবুকে আপনার সাথে খেলা করতে আসে নাই।

৯# যদি আপনি মেয়ের নামের আইডি খুলে থাকেন, নিজ থেকে কোনো ছেলেকে মেসেজ দেবেন না। ফেসবুকে অপরিচিত মেয়েরা কখনো ছেলেদের আগে আগে নক দেয় না। তবে মেয়েদেরকে দিতে পারেন। আর আপনি যেহেতু আইডিতে মেয়ে হলেও নিচ দিয়ে (আক্ষরিক অর্থেই!) ঠিকই ছেলে, সেহেতু মেয়েদের মেসেজ দিয়েই খুশি থাকবেন আশা করি।

১০# সবশেষে, কেউ আপনার আইডিকে ফেক বলে দাবি করলে তার সাথে ঝগড়া করতে যাবেন না বা প্রমাণ দিতে যাবেন না। কারণ চোরের মন পুলিশ পুলিশ। তাকে বলুন, 'হ্যাঁ আমি ফেক আইডি তোমার কোনো সমস্যা?'। অথবা সে নিজেই ফেক আইডি, উল্টো এমন অভিযোগ করেও দেখতে পারেন।

১২৪১ পঠিত ... ১৫:৪৮, নভেম্বর ০৮, ২০১৮

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

কৌতুক

গল্প

রম্য

সঙবাদ

সাক্ষাৎকারকি

স্যাটায়ার


Top