মাশরাফি ও সাকিব যেভাবে নিজেদের নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারেন

১৩১৯পঠিত ...০০:৩৪, জুন ০৮, ২০১৮

নির্বাচন করতে পারেন আমাদের প্রিয় ক্রিকেট তারকা মাশরাফি বিন মর্তুজা ও সাকিব আল হাসান। দৈনিক পত্রিকা সূত্রে সে খবর আমাদের সবারই কম বেশি জানা হয়ে গেছে। কিন্তু মাশরাফি-সাকিব যদি সত্যিই ভোটে দাঁড়ান, কেমন হবে তাদের নির্বাচনী প্রচারণা? দুইজনই যদি এখনও তা ঠিকঠাক না ভেবে থাকেন, প্রিয় ক্রিকেটারদের নির্বাচনে প্রচারণার কাজে সহায়তা করতে ভাবার কাজটা এর মধ্যেই সেরে ফেলেছে eআরকি!

 

সাকিব আল হাসান যেভাবে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারেন

 

১, দেশের এই পরিস্থিতিতে দরকার একজন অলরাউন্ডার। যে মানবতার পক্ষে কাজ করবে, একই সঙ্গে দমন করবে মাদক! আমি নির্বাচনে জিতলে দেশে মাদককে একটি 'নো বল' হিসেবে ঘোষণা করবো, মাদক ব্যবসায়ীরা 'ফ্রি হিট' হিসেবে পাবেন সুষ্ঠু বিচারের নিশ্চয়তা।

২, দেশবাসী! আমি জয়ী হলে খেলা দেখার জন্য দেশের প্রতিটা রাস্তার মোড়ে মোড়ে বসাবো বিগ স্ক্রিন! খেটে খাওয়া মানুষের জন্য আমার জীবনের প্রতিটা ইনিংস আমি উজাড় করে দিতে চাই...

৩. দেশের আজ কঠিন ইনজুরি চলছে। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে একটা ভোট আমি চাই। ভোট আপনাদের, ইনজুরি সামলানোর দায়িত্ব আমার।

৪. আমি নির্বাচনে জয়ী হলে, দেশের প্রতিটা গার্ডেন হবে ইডেন গার্ডেনের মত। বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ হবেন একেকজন নাইট রাইডার... (মানে রাতেও নিরাপদে যে কোনো রাইডে চলাফেরা করা যাবে...)

৫. যদি আপনাদের ভোট পেয়ে নির্বাচনে জয়ী হতে পারি, ট্রাফিক সেক্টরে আমূল পরিবর্তন আনবো। অকেজো ট্রাফিক পুলিশের বদলে রাস্তায় আনবো ট্রাফিক আম্পায়ার। যানজট নিরসনে বিশেষ বিশেষ পয়েন্টে থার্ড আম্পায়ারের ব্যবস্থাও থাকবে।

৬, আপনারা বলেন, 'বাংলাদেশের জান, সাকিব আল হাসান', আজ এই জান একটা ভোট চায়। বাংলাদেশের জানকে বাঁচাতে প্রয়োজন শুধু আপনার একটি ভোট!

৭. প্রিয় দেশবাসী, আপনারা আফগানিস্তানের মতো ছোট দেশ নিয়ে কেন ভাবছেন? হোয়াই? আমি নির্বাচনে জিতলে বাংলাদেশ আমেরিকা রাশিয়া চীন ও ভারতের সাথে রাজনৈতিক সিরিজ জিতবে... এ আমার অঙ্গীকার!

৮. আগামী নির্বাচনে জয়লাভ করলে রাস্তাগুলা লর্ডসের পিচের মত মসৃণ বানিয়ে দেবো। সকল দুর্নীতি লেগে চাপিয়ে পুল করে পাঠিয়ে দেবো বাউন্ডারির বাইরে। উন্নয়ন হবে স্কুপ প্যাডেলের মত দৃশ্যমান। আপনাদের সমর্থন চাই। তবেই এ দেশের অর্থনীতির চাকা আমি ঘুরাতে পারি অফ স্পিন বলের মতো...

 

মাশরাফি যেভাবে নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে পারেন

১. সংগ্রামী ভাইয়েরা আমার। পেস বলের জন্য অনেক দৌড়েছি, আজ আমি দেশের উন্নয়নে জন্য দৌড়াতে চাই। নির্বাচনে জয়যুক্ত হলে আপনারা দেখতে পাবেন, পাঁচ বছরের দীর্ঘ স্পেলে উন্নয়ন কীভাবে একের পর এক রান-আপ নেয়!

২. দেশ আজ প্রতিটা ক্ষেত্রে ক্যাপ্টেনহীনতায় ভুগছে। ইলেকশনে জয়ী হয়ে আমি নিজে মাঠে নেমে দেশে অধিনায়কের অভাব দূর করতে চাই!

৩. আমি নির্বাচনে জয়ী হলে দেশের কোনো ইনজুরি আমাদের দমাতে পারবে না। দুর্নীতিবাজ মন্ত্রী-এমপিরা বেঈমানী করলেও ঘাড়ের রগ বাঁকা করে চ্যালেঞ্জ করবো নিজেকেই, দেশের সব সমস্যাকে বোল্ড আউট করেই ছাড়বো ইনশাল্লাহ!

৪. বিরোধী দলকে সাবধান করতে চাই। ষড়যন্ত্রমূলক কিছু করলে 'ধইরে দিবানি'। ২০০৭ বিশ্বকাপে ভারতকে যেমন দিয়েছিলাম...

৫. ভাইয়েরা আমার। দেশের আজ স্লগ ওভার চলছে। চারিদিকে দুর্নীতি। নির্বাচনে জিতলে পটাপট দূর্নীতিবাজদের উইকেটগুলো তুলে নেবো আমি!

৬. দেশের আজ বড় দুঃসময়, পড়ছে একের পর এক উইকেট। এদিকে যেন বোর্ডে তুলতে হবে আরও ৩০০ রান। এমন কঠিন সময়ে আপনাদের একটি ভোটই আমাকে ব্যাট হাতে নেমে গিয়ে একের পর এক ছক্কা হাকানোর সুযোগ করে দেবে!

৭. আমি নির্বাচিত হলে দেশের উন্নয়নের দুই পা লিগামেন্ট ইনজুরি উপেক্ষা করে এগিয়ে যাবে হাঁটি হাঁটি পা পা করে...

৮. দেশ ও জাতির এই ক্রান্তিলগ্নে প্রয়োজন একটিমাত্র ম্যাচ টার্নিং ওভার। জনগণের ভোট পেয়ে নির্বাচিত হলেই আমি একটি ব্রেক-থ্রু ওভার করতে বল হাতে নেমে পড়তে চাই...

১৩১৯পঠিত ...০০:৩৪, জুন ০৮, ২০১৮

আরও eআরকি

পাঠকের মন্তব্য

 

    ইহাতে মন্তব্য প্রদান বন্ধ রয়েছে

    আপনার পরিচয় গোপন রাখতে
    আমি নীতিমালা মেনে মন্তব্য করছি।

    কৌতুক

    গল্প

    রম্য

    সঙবাদ

    সাক্ষাৎকারকি

    স্যাটায়ার

    evolution22
    
    Top